তথ্য-প্রযুক্তির মাধ্যমে শিশু-কিশোরদের বর্ণমালা শেখার বই ‘লার্ন অ্যালফাবেট উইথ টেকনোলজি’- এর বইয়ের মোড়ক উম্মোচন করলেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি। সম্প্রতি রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউটে আয়োজিত ন্যাশনাল ইয়ুথ ক্যারিয়ার কার্নিভাল নামক তারুণ্য বিষয়ক একটি অনুষ্ঠানে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন তিনি।

এ সময় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. বিকর্ণ কুমার ঘোষ, আইসিটি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্পের পরিচালক মো. আলতাফ হোসেন, বেসিস এর সভাপতি রাসেল টি আহমেদ, বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া চেম্বার অফ কমার্স ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, অন্ট্রাপ্রেনিউরস ক্লাব অব বাংলাদেশ (ই ক্লাব) এর সভাপতি মোহাম্মদ শাহরিয়ার খান প্রমুখ।

‘লার্ন অ্যালফাবেট উইথ টেকনোলজি’ বইটি শিশু কিশোরদের বর্ণমালা শেখার একটি বই, যেখানে বর্ণমালা শেখার সঙ্গে সঙ্গে তথ্য-প্রযুক্তির বিভিন্ন বিষয়ের সঙ্গে পরিচিত হতে পারবে শিশুরা। বইটিতে প্রথাগত এ ফর অ্যাপল, বি ফর বল ইত্যাদি শব্দ ব্যবহার না করে এ ফর অ্যান্ড্রয়েড, বি ফর ব্লুটুথ, সি ফর কম্পিউটার ইত্যাদি উদাহরণ ব্যবহার করে তথ্য প্রযুক্তি সংশ্লিষ্ট বিষয় শেখানো হয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি বলেন, শিশুদের আনন্দের সাথে তথ্যপ্রযুক্তির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে লার্ন টেকনোলজি উইথ অ্যালফাবেট বইটি সহায়ক হবে। এ সময় তিনি এই বইটি সময়োপযোগী বলে মন্তব্য করেন এবং বইটির সাফল্য কামনা করেন।

বইটির লেখক শামিমা বিনতে জলিল বলেন, এই বইটি ‘লার্ন উইথ অ্যালফাবেট’ শিশুদের প্রযুক্তি সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা দেবে এবং প্রযুক্তির গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো সম্পর্কে ভাবতে শেখাবে। বইটি হুইসেলের ফেসবুক পেজ, ওয়েবসাইট, বিভিন্ন ই-কমার্স মার্কেটপ্লেস এবং স্টেশনারি শপগুলোতে পাওয়া যাবে।

এ বই প্রসঙ্গে হুইসেলের ভাইস চেয়ারম্যান মিঠু মোড়ল বলেন, আমরা চাই শিশু কিশোররা যাতে ছোটবেলা থেকেই প্রযুক্তির সঙ্গে পরিচিত হয়ে ওঠে। এই লক্ষ্যেই লার্ন অ্যালফাবেট উইথ টেকনোলজি বইটি লেখা হয়েছে।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন হুইসেল এর হেড অব প্রডাক্ট ডেভেলপমেন্ট মাকসুদা হাসান তনিমা, হেড অব মার্কেটিং মাজহারুল ইসলাম বেগ, হেড অব এডমিন রায়হান চৌধুরী রনি, হেড অফ কোর্স ডেভেলপমেন্ট আনিকা নায়ার তূর্ণা, হেড অফ বুকশপ সিহাব আহমেদ স্বাধীন এবং প্রজেক্ট কো অর্ডিনেটর খালিদ সাইফুল্লাহ্।