ঝটিকা পরিদর্শনে গিয়ে রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী রেখে জনসাধারণের চলাচল ব্যাহত ও ফুটপাতের টাইলস ভাঙার দায়ে দুটি বাড়ির নির্মাণ কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। এ ছাড়া অব্যবস্থাপনার দায়ে কয়েকটি দোকান মালিকের ট্রেড লাইসেন্স পরীক্ষা করে জরিমানারও নির্দেশ দেন তিনি। এ সময় অনুমোদন না থাকায় তাৎক্ষণিকভাবে কয়েকটি দোকান বন্ধ করে দেওয়া হয়।

বুধবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে রাজধানীর মহানগর আবাসিক ও পশ্চিম রামপুরা এলাকায় তিনি এ ঝটিকা পরিদর্শনে যান। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

ঝটিকা পরিদর্শনের সময় মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘শুধু জরিমানা করে ক্ষান্ত হলে চলবে না, নিয়মিত মামলা করে এদের বিরুদ্ধে স্থায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে।’

মেয়র আরও বলেন, ‘নগরবাসীর সেবা সুনিশ্চিত করার প্রতিশ্রুতি নিয়ে দায়িত্বে এসেছি। জনসাধারণ কষ্ট করবে, অন্যরা বাড়ি বানাবে রাস্তায় মালামাল রেখে তা হতে দেওয়া যায় না। কেউ ড্রেন বন্ধ করে দোকান বসিয়েছে, কেউ সরকারি পয়সায় করা চমৎকার রাস্তা-ফুটপাত দখল করে বাড়ি নির্মাণ করছে। এগুলো অন্যায়, এগুলো মেনে নেওয়া যায় না।’

আগামী রোববার থেকে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে ডিএনসিসি এলাকায় মাস্ক বিতরণ করা হবে বলে জানান মেয়র।

আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘মাস্ক আমার, সুরক্ষা সবার। সবাইকে সর্বাবস্থায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।’