রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে শুক্রবার সকালে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে একই পরিবারের তিনজন নিহত হয়েছেন। 

শুক্রবার সকাল আনুমানিক সোয়া ৭টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে সমকালকে জানান যাত্রাবাড়ী থানার ডিউটি অফিসার এসআই হারুনুর রশীদ।

তিনি বলেন, ‘বাস-সিএনজি সংঘর্ষে তিন জন মারা গেছেন। তারা সবাই এক পরিবারের সদস্য বলে জানতে পেরেছি। তাদের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।’

হারুনুর রশীদ জানান, সোমবার সকাল সোয়া ৭টার দিকে মাতুয়াইলের শিশু-মাতৃ স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সামনে ইউটার্ন ঘোরার সময় সিএনজিকে ধাক্কা দেয় একটি যাত্রীবাহী বাস। এতে ঘটনাস্থলে তিনজন মারা যান। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে বেঁচে যান সিএনজি চালক ও পাঁচ বছরের একটি শিশু। 

দুর্ঘটনাকবলিত সিএনজি পুলিশ সড়ক থেকে সরিয়ে নিলেও অভিযুক্ত বাস চালক বা বাস কোনোটিই আটক করতে পারেনি পুলিশ। এ বিষয়ে পুলিশ কাজ করছে বলে জানান তিনি।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) বাচ্চু মিয়া জানান,  নিহত ব্যক্তিরা হলেন আবদুর রহমান (৬০), তাঁর মেয়ে শারমিন বেগম (৩৮) ও মেয়ের স্বামী রিয়াজুল (৪৫)। এ ঘটনায় শারমিনের মেয়ে বৃষ্টি (৬) ও অটোরিকশাচালক রফিক (৪২) আহত হন। জরুরি বিভাগে বৃষ্টি ও রফিকের চিকিৎসা চলছে।