রাজধানীর ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব সিটি করপোরেশনের হাতে দিলে গাড়ির রেজিস্ট্রেশনের জোড়-বেজোড় সংখ্যার মাধ্যমে যান চলাচলের প্রক্রিয়া চালু করবে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।

এভাবে রাজধানীর যানজট নিরসন করা হবে বলে জানিয়েছেন ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, ট্রাফিক ব্যবস্থা সিটি করপোরেশনকে দিলে জোড় নম্বরের গাড়িগুলো জোড় তারিখে ও বেজোড় নম্বরের গাড়িগুলো বেজোড় তারিখের দিনে চালাতে পারবেন মালিকরা।

শনিবার রাজধানীর উত্তরা ৭ নম্বর সেক্টরের রবীন্দ্র সরণির পশ্চিম প্রান্তের বটমূলে ‘বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চ’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, রাজধানীর কোনো রাস্তায় কী সংখ্যক গাড়ি চলাচল করে, কোন রাস্তায় বেশি যানজট হয়, এসব গবেষণা করে কার্যকর ট্রাফিক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

তিনি বলেন, উত্তরা এলাকার শিশু-কিশোরদের সুস্থ, সুন্দর বাসযোগ্য পরিবেশ নিশ্চিত করতে এই মুক্তমঞ্চটি নির্মাণ করেছে ডিএনসিসি। সেখানে শিশু-কিশোররা আড্ডা, গল্প, গান বা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করতে পারবে। উত্তরা এলাকার শিশু-কিশোরদের সংস্কৃতি বিকাশের জন্য এই এলাকায় শিল্পকলা একাডেমি ও বাংলা একাডেমির মতো প্রতিষ্ঠানের শাখা খোলা প্রয়োজন বলে মত দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য মেহের আফরোজ চুমকি, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি নুরুল হুদা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, মুক্তিযুদ্ধ যাদুঘরের ট্রাস্টি মফিদুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।