লালমনিরহাটে পুলিশ হেফাজতে রবিউল ইসলাম খান (২৫) নামে এক যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আতিকুল ইসলামকে প্রধান করে এই কমিটি গঠন করা হয়।

তদন্ত কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এদিকে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

এর আগে পুলিশ হেফাজতে রবিউলের মৃত্যুর অভিযোগ ওঠে। বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। গার্মেন্টকর্মী রবিউল ইসলাম খান সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের দুলাল খানের ছেলে। নিহতের স্বজনদের দাবি, পুলিশি নির্যাতনে তার মৃত্যু হয়েছে।

পুলিশ ও রবিউলের স্বজনরা জানায়, লালমনিরহাট সদর উপজেলার হারাটি ইউনিয়নের হিরামানিক এলাকায় বৈশাখ উপলক্ষে মেলা চলছিল। মেলা-সংলগ্ন এলাকায় জুয়ার আসর বসে। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ১১টার দিকে সদর থানার পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।

এ সময় রবিউলসহ দুইজনকে আটক করে পুলিশ। এদের মধ্যে রবিউল অসুস্থ হয়ে পড়লে রাত ১২টার দিকে পুলিশ তাকে চিকিৎসার জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা চলাকালীন তিনি মারা যান।