যৌতুকের জন্য নির্যাতনের অভিযোগে রংপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেবাংশু কুমার সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তার স্ত্রী ডা. হৃদিতা সরকার। মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-২ এ মামলাটি দায়ের করেন তিনি। বিচারক রোকোনুজ্জামান অভিযোগটি গ্রহণ করে আগামী ২১ এপ্রিল বাদীর জবানবন্দি রেকর্ডের দিন ধার্য করেছেন। 

রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতম দমন আদালতের বিশেষ পিপি খন্দকার রফিক হাসনাইন জানান, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেবাংশু কুমারের বিরুদ্ধে মামলায় তার স্ত্রী অভিযোগ করেছেন, ২০২১ সালের ২৫ আগস্ট রংপুর জজ শিপের স্টাফ কোয়াটারের নিচ তলায় সকাল ৮টায় তাকে মারপিট এবং চলতি বছর ২৮ মার্চ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রংপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের প্রধান ফটকের সামনে নতুন গাড়ি কেনার জন্য ৩০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে মারপিট করে গুরুতর জখম করেন দেবাংশু কুমার। এ ঘটনায় ডা. হৃদিতা সরকার হাসপাতালে ২১ দিন চিকিৎসাধীন ছিলেন। নির্যাতনের কারণে বাদী তার শ্রবণ শক্তি হারিয়েছেন।

পিপি আরও বলেন, মঙ্গলবার রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতনের দমন ট্রাইবুনালের ২ এর বিচার রোকনুজ্জামানের আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১১(ক) (খ)/৩০সহ দন্ডবিধি ৩২৩ ধারায় মামলা দায়ের করেছেন ডা. হৃদিতা সরকার। আদালত বাদী জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য আগামী ২১ এপ্রিল দিন ধার্য করেছেন। ওইদিন ফৌজদারী কার্যবিধি অনুযায়ী বাদী আদালতে হাজির হয়ে জবানবন্দি দেবেন।