চিরিরবন্দরে তেলবাহী ট্রেনের ইঞ্জিন বিকল হয়ে রেলক্রসিংয়ে আটকে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে রাস্তার দুই পাশে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। সাড়ে তিন ঘণ্টা ধরে ট্রেন আটকে থাকায় দুর্ভোগে পড়তে হয় সাধারণ মানুষকে।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় চিরিরবন্দর রেলস্টেশন থেকে ৫০০ গজ পূর্বে জায়েদার মোড়ে রেলক্রসিংয়ে এ ঘটনা ঘটে। সকাল সাড়ে ১১টায় আটকে যাওয়া পঞ্চগড় এক্সপ্রেসের ইঞ্জিন সংযোজন করে ট্রেনটি সরানো হয়।

চিরিরবন্দর রেলওযে স্টেশন মাস্টার শহিদুল ইসলাম জানান, রোববার ভারত থেকে আসা ৪২টি তেলের ওয়াগান নিয়ে পার্বতীপুরে যায় ট্রেনটি। তেল খালাস করা শেষে সোমবার সকালে ভারতে ফেরার পথে চিরিরবন্দর রেলওয়ে স্টেশনে প্রবেশের সময় ইঞ্জিন বিকল হয়ে রেলক্রসিংয়ের ওপরে আটকা পড়ে। তবে বিকল্প রেললাইন থাকায় ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক ছিল।

তিনি আরও জানান, বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। পরে কোনো বিকল্প ইঞ্জিন এলে খালি ওয়াগানগুলো সেই ইঞ্জিনের মাধ্যমে ভারতে ফেরত পাঠানো হবে।