ঘুমের ও প্রেমের গান নয় এখন জেগে ওঠার গান গাইতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি। ‘জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ১২৩তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে’ এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকারের আমলে আমরা যে ভয়াবহ অবস্থার মধ্যে আছি, তা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য আসুন আমরা সেই গান এক সাথে গাই- বল বীর—/বল উন্নত মম শির। আর কোথাকার সেই ঘুমের গান এবং প্রেমের গান দিয়ে এখন হবে নাম এখন জেগে ওঠার গান গাইতে হবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অন্তরীণ, আমাদের নেতা তারেক রহমান দেশের বাইরে নির্বাসিত অবস্থায় আছেন, আমাদের গণতন্ত্রকামী ৩৫ লাখ মানুষের বিরুদ্ধে মামলা। আর বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যা ঘটছে, এই যুগেও তা আমাদের দেখতে হয়! নারীদের উপর চরম নির্যাতন করা হচ্ছে। এখানেই নজরুল সবচেয়ে বেশি প্রাসঙ্গিক। এখানেই জেগে উঠতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘এখানে একজন বলছিলেন যে, ঘুমিয়ে থাকে। এই ঘুম থেকে জেগে উঠতে হবে। আমাদেরকে জেগে উঠে আমাদের নিজেদেরকে মুক্ত করতে হবে। সেই মুক্তিই হচ্ছে আমাদের এক মাত্র পথ।’

কাজী নজরুল ইসলামের প্রতি স্মৃতিচারণ করে ফখরুল বলেন, ‘বাংলাদেশের বর্তমান সময়ে নজরুল এতো বেশি প্রাসঙ্গিক যে প্রায়ই তার কথা মনে পড়ে এবং তার কথা উচ্চারণ করতে ইচ্ছে করে। আজ এই দুর্গম গিরি কান্তার মরু পার হতে হবে। এই যে দুঃশাসন, ফ্যাসিবাদ, অন্যায়, অত্যাচার এবং নির্যাতনে সমস্ত বাংলাদেশকে গ্রাস করে ফেলেছে- এখান থেকে বেরোতে হবে।’

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন একাংশের সাবেক সভাপতি কবি আবদুল হাই শিকদারের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।