রাজধানীতে ছিন্নমূল ও ভবঘুরেদের জন্য ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন-ডিএসসিসির একটি আশ্রয়কেন্দ্র র‌্যাব ‘দখল করে রেখেছে’ বলে জানিয়েছেন মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। 

তিনি বলেন,‘ছিন্নমূল ও ভবঘুরেদের জন্য আমাদের আশ্রয় কেন্দ্র রয়েছে। কিন্তু সেটা র‍্যাব দখল করে আছে। আমরা অনুরোধ করেছি সেটা ছেড়ে দিতে। কিন্তু এখনও তারা দখল ছাড়েনি। এছাড়াও ভবঘুরে এবং ছিন্নমূলদের পূর্নবাসনের জন্য আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে।’  

বুধবার দুপুরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকার জনপথ মোড়ে একটি গণশৌচাগার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মেয়র এ কথা বলেন বলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সম্পত্তি বিভাগ সূত্র বলছে, রাজধানীর ধলপুর এলাকায় সিটি করপোরেশনের একটি আশ্রয়কেন্দ্র রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে এটি র‍্যাব–১০–এর কার্যালয় হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। আশ্রয়কেন্দ্রের জায়গা ছেড়ে দিতে ডিএসসিসি ইতোমধ্যে র‌্যাবকে ছয় দফা চিঠি দিয়েছে। কিন্তু এখনো এটি ফিরিয়ে দেওয়া হয়নি। র‍্যাব বলেছে, তারা বিকল্প জায়গা খুঁজছে। জায়গা খুঁজে পেলে এটি ছেড়ে দেওয়া হবে।

বুধবারের অনুষ্ঠানে মেয়র তাপস জানান, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৭৫টি ওয়ার্ডে ন্যূনতম ১টি করে গণশৌচাগার নির্মাণ করা হবে।

তিনি বলেন, ঢাকাবাসীর দীর্ঘদিনের একটি আকাঙ্ক্ষা ছিল বিশেষ করে যে সকল জায়গায় গণপরিসর ও মানুষের আনাগোনা বেশি সে সকল স্থানে যেন পর্যাপ্ত গণশৌচাগার নির্মাণ করা হয়। সেই কার্যক্রম আরম্ভ করেছি। আমাদের লক্ষ্য ৭৫টি ওয়ার্ডে প্রথম পর্যায়ে ন্যূনতম যেন একটি করে গণশৌচাগার নির্মাণ করা যায়। পরবর্তীতে আমরা জরিপ করে আরও চাহিদা অনুযায়ী সেটাকে বৃদ্ধি করব। তবে প্রাথমিক পর্যায়ে আমরা এই লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে চলেছি।

এর আগে শেখ ফজলে নূর তাপস মতিঝিল এলাকায় ৮ নম্বর ওয়ার্ডের অন্তর্বর্তীকালীন বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্র ও পরে নগরীর ৭২ নম্বর ওয়ার্ডে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৫৫ জন নারীর প্রত্যেকের মাঝে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৫ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অনুদান বিতরণ করেন।