চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে ‘ডাকাত’ সন্দেহে র‌্যাব সদস্যদের গাড়িতে হামলা চালিয়েছে দুষ্কৃতিকারীরা। এতে র‌্যাবের ৩ সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বারইয়ারহাট পৌর বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে আহততের উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, আহত র‌্যাব সদস্যরা হলেন পারভেজ, মোখলেস ও শামীম কাউসার। কী কারণে এই হামলা হয়েছে তা রাত সাড়ে ১০টায়ও স্পষ্ট করেনি কোনো পক্ষ। র‌্যাব ও পুলিশের কেউই ঘটনা নিয়ে খুলছে না মুখ। তবে ঘটনাস্থলে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। অতিরিক্ত পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন আছে ঘটনাস্থলে।

চট্টগ্রাম র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল এমএ ইউছুপ জানান, র‌্যাব সদস্যরা অভিযানে গেলে কিছু দুষ্কৃতিকারী তাদের ওপর হামলা চালায়। এতে তিনজন সদস্য আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে হেলিকপ্টারে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। র‌্যাবের বিপুল সংখ্যক সদস্য ঘটনাস্থলে আছে।

জোরারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুর হোসেন মামুন রাত সাড়ে ৯টায় জানান, র‌্যাব সদস্যদের ওপর হামলার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে যান তারা। সেখান থেকে তিনজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, ঘটনার পর চট্টগ্রাম শহর থেকে র‌্যাবের একটি টিম মিরসরাইয়ের উদ্দেশে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে। আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতে র‌্যাবের একটি  টিম ঢাকায় রওনা দেয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, র‌্যাবের সদস্যরা ছিলেন সাদা প্রাইভেট কারে। একটি কাভার্ডভ্যান হঠাৎ করে এই প্রাইভেট কারের সামনে গেলে গাড়ি থেকে উপরের দিকে গুলি ছোড়া হয়। এ সময় ডাকাত সন্দেহে স্থানীয়রা গাড়িতে আক্রমণ চালায়। দূর থেকে অনেকে ইট-পাটকেলও ছুড়ে মারে গাড়িতে। এই গাড়িতেই ছিল র‌্যাবের  সদস্যরা। তাদের অনেকের মাথায় গুরুতর জখম হয়েছে। 

হামলাকারীরা ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার করায় অল্প সময়ে অনেক মানুষ জড়ো হয়ে যায়। কিন্তু কে কীভাবে এই হামলা করেছে, র‌্যাব সদস্যরা কোন অবস্থায় ছিলেন, কোথায় তারা অভিযান পরিচালনা করছিলেন, কাভার্ডভ্যানটি কেন হঠাৎ করে ওভারটেক করে প্রাইভেটকারটির সামনে এসেছে- এসবের উত্তর মেলেনি রাতেও। তদন্ত করে ঘটনার প্রকৃত  কারণ জানানো হবে বলে র‌্যাবের  পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।