রাজধানীর উত্তরায় ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার সময় সালাম পার্টির সাত সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশ। গোপন খবরের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার উত্তরা-৭ ও ১৩ নম্বর সেক্টরে এ অভিযান চালানো হয়। পুলিশ জানায়, নির্জন রাস্তায় সালাম দিয়ে রিকশার গতিরোধ করে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে আরোহীর সর্বস্ব কেড়ে নেয় এই চক্রের সদস্যরা।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- আমিনুল ইসলাম বাবু ওরফে সুমন ইসলাম বাবু ওরফে সাইফুল, সজল সিদ্দিক, দেলোয়ার হোসেন ওরফে পরশ পাঠান ওরফে পলাশ ওরফে দীপু ওরফে মানিক ওরফে দেলোয়ার হোসেন ওরফে কালা মানিক, সাইফুল ইসলাম, মো. হাসান, আমির আলী ও লিটন মিয়া।

উত্তরা পশ্চিম থানার ওসি শাহ মো. আকতারুজ্জামান ইলিয়াস বলেন, সালাম পার্টির সদস্যরা দীর্ঘদিন ধরে উত্তরা, মিরপুর ও মতিঝিল এলাকায় সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে টাকা হাতিয়ে আসছে। তাদের একজন প্রথমে ব্যাংকে অবস্থান নেয়। ব্যাংক থেকে টাকা তুলে কেউ যখন রিকশায় ওঠে, তখন তারা পিছু নেয়। রিকশাটি নির্জন রাস্তায় পৌঁছলে তাদের একজন রিকশাযাত্রীর সামনে গিয়ে প্রথমে সালাম দিয়ে রিকশার গতিরোধ করে। এরপর তাদের সহযোগীরা একত্রিত হয়ে রিকশার হুড উঠিয়ে দেয়। শেষে অস্ত্রের মুখে রিকশা আরোহীর কাছে থাকা টাকা, মোবাইল ফোনসহ অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়। গ্রেপ্তার এড়াতে তারা বিভিন্ন সময়ে নিজেদের নাম, বাবা-মায়ের নাম ও ঠিকানা বদলে ফেলে। তাদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

ওসি জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে সালাম পার্টির সদস্যরা উত্তরা- ১৩ নম্বর সেক্টর এলাকায় ডাকাতির উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে বলে তথ্য পাওয়া যায়। এরপর সেখানে অভিযান চালিয়ে আমিনুল, সজল, দেলোয়ার ও সাইফুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে একটি রিকশা, একটি চাপাতি, চার টুকরো নাইলন রশি ও তিনটি চাকু উদ্ধার করা হয়। একই দিনে পৃথক অভিযানে উত্তরা-৭ নম্বর সেক্টর থেকে অপর তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছে পাওয়া গেছে দুটি রিকশা, একটি চাপাতি, চার টুকরো নাইলন রশি ও একটি কাটার নাইফ।