আগুনে নথিপত্রের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সোমবার ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও সহকারী মুখপাত্র জি, এম, আবুল কালাম আজাদ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিসপেনসারি উপবিভাগে ভবনের চতুর্থ তালায় ফ্রিজের কমপ্রেসার থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিটের চেষ্টায় ৬টা ৫০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসলেও তা পুরোপুরি নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এখনও কাজ করছেন। 

ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের মিডিয়া শাখার কর্মকর্তা শাহজাহান সিকদার সমকালকে জানান, সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ৫০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসলেও তা পুরোপুরি নেভাতে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কাজ করছেন এখনও।

এর আগে সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে ওই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে সমকালকে জানিয়েছিল তিনি। ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিট আগুন নেভানোর কাজ করছে।

শাহজাহান সিকদার বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক ভবনের চার তলায় আগুন লাগার খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে মতিঝিল এলাকায় দায়িত্বরত টহল টিম আগুন নেভাতে ছুটে যায়। পরে সেখানে সিদ্দিক বাজার স্টেশন থেকে আরও তিনটি ইউনিট ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানো শুরু করে।