ঢাকার মেরাদিয়া জে ব্লকের বাঁশপট্টি সংলগ্ন আঙ্গর জোড়া এলাকায় রামপুরা খালের উপর একটি অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ কাজ হতে দেখে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘কাজ হবে না। বন্ধ, বন্ধ।’

বুধবার সপ্তাহের অন্যান্য দিনের মতো সকাল থেকে সাপ্তাহিক নিয়মিত পরিদর্শনে বেরিয়েছিলেন মেয়র। প্রথমে তিনি যান মেরাদিয়া বাজার সংলগ্ন এলাকায় 'মেরাদিয়া-আফতাব নগর সংযোগ সেতুর সম্ভাব্য স্থান' পরিদর্শনে। স্থানটি পরিদর্শন শেষে পরবর্তী গন্তব্যে যাওয়ার সময় রামপুরা খালের উপর অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ হতে দেখেন। এ সময়  গাড়ি থেকে নেমে তিনি স্থাপনা গড়ে তোলার কাজে নিয়োজিত নির্মাণ শ্রমিকদের উদ্দেশে এই কথা বলেন। 

এ সময় তিনি প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিনকে আজকেই এই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের নির্দেশ দেন। এরপর তিনি ফকিরখালী খালের বর্তমান অবস্থান দেখতে নৌকায় সরেজমিনে পরিদর্শনে যান। তিনি ফকিরখালী খাল রক্ষায় এবং ইতোমধ্যে খালের উপর গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে ডিএসসিসি প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর সিতওয়াত নাঈম, প্রধান প্রকৌশলী সালেহ আহম্মেদ, সচিব আকরামুজ্জামান, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা আরিফুল হক, অঞ্চল-২ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা সোয়ে মেন জো, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী খায়রুল বাকের ও কাজী বোরহান উদ্দিন, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ সিরাজুল ইসলাম, সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডসমূহের কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলরবৃন্দ এবং আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।