বন্ধ ঘোষিত রাষ্ট্রায়ত্ত পাট, সুতা ও বস্ত্রকল আধুনিকায়ন করে চালুসহ ছয় দফা দাবি জানিয়েছে পাট, সুতা ও বস্ত্রকল শ্রমিক-কর্মচারী সংগ্রাম পরিষদ।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে রাষ্ট্রায়ত্ত খাত রক্ষার আন্দোলনে ১৭ জন শ্রমিক নিহতের স্মরণে 'শ্রমিক হত্যা দিবস' উপলক্ষে পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় নেতারা এ দাবি জানান।

তাঁরা বলেন, লোকসানের অজুহাত দেখিয়ে এসব কারখানা বন্ধ করা হয়েছে। ভুলনীতি, দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার পাশাপাশি এর প্রকৃত কারণ আধুনিক যন্ত্রের ব্যবহার না করা। কারখানাগুলোকে উন্নত প্রযুক্তির যন্ত্রপাতির মাধ্যমে আধুনিকায়ন করে চালু করলে অবশ্যই লাভজনক শিল্পে পরিণত করা সম্ভব।

ছয় দফা দাবির মধ্যে আরও রয়েছে- রাষ্ট্রায়ত্ত কারখানাগুলোর চাকরিচ্যুতদের মধ্যে কর্মক্ষম শ্রমিকদের কাজে ফিরিয়ে আনা ও আইনসম্মত সব বকেয়া পাওনা পরিশোধ, ব্যক্তি মালিকানাধীন শ্রমিকদের জন্য নূ্যনতম মজুরি বোর্ডের রোয়েদাদ প্রকাশ ও দ্রুত বাস্তবায়ন, শ্রমিকদের জন্য রেশনিং প্রথা ফের চালু, ম্যানুফ্যাকচারিং খাতের অগ্রগতি ও সে লক্ষ্যে শ্রমিক-কর্মচারীদের জীবনমানের উন্নতি নিশ্চিত করা এবং ১৯৯৪ সালে রাষ্ট্রায়ত্ত খাত রক্ষার আন্দোলনে নিহত ১৭ জন শ্রমিকের দুর্দশাগ্রস্ত পরিবারের পুনর্বাসন করা।

পরিষদের আহ্বায়ক শহীদুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন সংগ্রাম পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক কামরুল আহসান, মছিউদদৌলা, জেডএম কামরুল আনাম, সিরাজুল ইসলাম, মনোয়ার হোসেন, আসলাম খান প্রমুখ।