রাজধানীর মোহাম্মদপুরে একটি বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার লিকেজ থেকে আগুনে মা-ছেলে দগ্ধ হয়েছেন। মঙ্গলবার ভোর ৬টার দিকে নবীনগর হাউজিং ২ নম্বর রোড ৪৭ নম্বর টিনশেড বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। দগ্ধ অবস্থায় তাদের দুজনকে শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়।

তারা হলেন- আম্বিয়া খাতুন (৪৫) ও তার ছেলে মো. কাজল (২৬)।

দগ্ধ আম্বিয়ার মেয়ের জামাই নূর আলম জানান, বাসায় দুই ছেলে ও স্বামী মমতাজ আহমেদকে নিয়ে থাকেন আম্বিয়া। বাসা বাড়িতে কাজ করেন তিনি। আর কাজল নবোদয় হাউজিংয়ে একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন।

তিনি আরও জানান, বাসাটিতে সিলিন্ডার গ্যাসের মাধ্যমে রান্না করেন তারা। ভোরে যখন বাসার সবাই ঘুমিয়ে ছিলেন তখন আম্বিয়া রান্না করতে রান্নাঘরে গিয়ে দিয়াশলাই জ্বালাতেই জমে থাকা গ্যাস থেকে হঠাৎ আগুন ধরে যায়। এতে তার শরীরে আগুন লেগে গেলে তিনি চিৎকারে করে উঠেন। এ সময় কাজল মায়ের শরীরের আগুন নেভাতে গেলে তার হাতেও দগ্ধ হয়। পরে তাদেরকে শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়।

ইনস্টিটিউটের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, আম্বিয়ার শরীরের ৫০ শতাংশ দগ্ধ হয়েছে। তাকে আইসিইউতে ভর্তি রাখা হয়েছে। তবে কাজলের হাতে সামান্য দগ্ধ হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।