ঈদের ছুটিতে মোটরসাইকেলে মা-মেয়ে, বাবা ও ছেলে চারজন বাড়ি যাওয়ার পথে দিনাজপুরে লরির ধাক্কায় মা ও মেয়ে নিহত হয়েছেন। বুধবার ভোর পৌনে পাঁচটার দিকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনের সড়কে এই দুর্ঘটনায় বাবা ও ছেলে আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন- দিনাজপুরের বিরল উপজেলার তেঘরা দারুল হাদীস সালাফিয়্যাহ মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ হোসাইনের স্ত্রী মোছাঃ ফাইমা বেগম (৩০) ও মেয়ে মোছাঃ বিউটি খাতুন (১৩)। দুর্ঘটনায় দেড় বছর বয়সী ছেলেসহ ওই শিক্ষক মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জে নিজ পরিবারের সঙ্গে ঈদ করার উদ্দেশে ভোরে স্ত্রী, ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে রওনা দেন মোহাম্মদ হোসাইন। পথে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সামনে পৌঁছালে একটি তেলবাহী লরি পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে স্বপরিবারে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন এবং ঘটনাস্থলেই স্ত্রী ও মেয়ে নিহত হয়। দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় এবং বাবা-ছেলেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

শিক্ষক মোহাম্মদ হোসাইনের ভাই মোহাম্মদ হাসান বলেন, তাদের বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট উপজেলাল পাঁচটিকরি গ্রামে। একসঙ্গে ঈদ করার জন্য সকালে নিজ বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জ যাচ্ছিলেন তার ভাই।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসাদুজ্জামান বলেন, নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এই ঘটনায় একটি ইউডি মামলা করা হয়েছে।