শুল্ক ফাঁকি দিয়ে রাজধানীর বারিধারায় লুকিয়ে রাখা ২৭ কোটি টাকা দামের নতুন রোলস রয়েস ব্র্যান্ডের একটি বিলাসবহুল গাড়ি জব্দ করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। এটি ২০২১ সালের তৈরি স্পোর্টস ইউটিলিটি ভেহিকেল ধরনের এবং কুলিনান মডেলের। আমদানি মূল্য অনুযায়ী গাড়িটির ওপর প্রযোজ্য শুল্ক ২৪ কোটি টাকা। বুধবার শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

চট্টগ্রাম ইপিজিডের জেডঅ্যান্ডজেড ইনটিমেটস কোম্পানিটি শুল্কমুক্ত সুবিধায় ২০০০ সিসি উল্লেখ করে গত ২৭ এপ্রিল এ গাড়িটি আমদানি করে। কিন্তু পরীক্ষা করে দেখা গেছে, গাড়িটি ৬ হাজার ৭৫০ সিসির।

জেডঅ্যান্ডজেড ইনটিমেটস কোম্পানিটির হংকং ও বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে পরিচালিত। আমদানি করা গাড়িটি চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কোম্পানিটির কার্যালয়ে এস্কর্ট করে পৌঁছে দেওয়া হয়। এর আগে ২৭ এপ্রিল গাড়িটি ছাড় করার জন্য বি/ই দাখিল করা হয়। কিন্তু দীর্ঘ ৭০ দিনেও তারা শুল্কায়ন সম্পন্ন করা হয়নি।

পরে গোয়েন্দা তথ্য নিয়ে জানা যায়, গত ১৭ মে ইপিজেড থেকে গাড়িটি অবৈধভাবে ঢাকার বারিধারায় নিয়ে আসা হয়েছে। শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের যুগ্ম পরিচালক শামসুল আরেফিন খানের নেতৃত্বে বারিধারায় প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের বাসার গ্যারেজে অভিযান চালানো হয়। গত সোমবার ওই বাসার গ্যারেজ থেকে গাড়িটি জব্দ করেন তাঁরা।

বিদ্যমান আইন অনুযায়ী ২০০০ সিসির ওপর কোনো গাড়ি শুল্কমুক্ত সুবিধা পায় না। জব্দ করা গাড়ির আমদানি শুল্ক এর প্রকৃত মূল্যের আট গুণ।

শুল্ক গোয়েন্দা অধিদপ্তর আরও জানায়, আমদানিকারক শুল্কায়ন প্রক্রিয়া শেষ না করে গাড়িটি বেআইনিভাবে গ্যারেজে লুকিয়ে রেখে শুল্ক আইনের বিধান ভঙ্গ করেছেন। এ ক্ষেত্রে চোরাচালান হিসেবে গণ্য হওয়ার অপরাধ হয়েছে। জব্দ করা গাড়িটি ঢাকা কাস্টম হাউসের শুল্ক গুদামে জমা দেওয়া হয়েছে। গাড়িটি শুল্কমুক্ত সুবিধা পাবে কিনা, তা পরীক্ষা করতে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করা হবে।