আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে জ্বালানি তেলের বর্ধিত দাম কমানোসহ তিন দফা দাবি জানিয়েছেন রাজধানীর বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থীরা। 

সোমবার সকালে রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে 'সাধারণ শিক্ষার্থী'র ব্যানারে আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচি ও বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে এসব দাবি জানান তাঁরা। তাঁদের অপর দুই দাবি হলো- গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি না করা ও শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস নিশ্চিত করা।

সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, আকস্মিক জ্বালানি তেলে দাম বৃদ্ধি করায় গণপরিবহনে ভাড়াও অস্বাভাবিক বাড়ানো হয়েছে। যা বহন করা সাধারণ মানুষের পক্ষে সম্ভব নয়। শিক্ষার্থীদের পক্ষে যা আরও অসম্ভব। তেলের দাম বৃদ্ধির ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রতিটি জিনিসের দামও অস্বাভাবিক বেড়েছে; যা সাধারণের ক্রয়ক্ষমতার বাইরে।

বাস মালিকরা ওয়েবিলের নামে প্রহসন করছে মন্তব্য করে সাত কলেজ আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক ইসমাইল সম্রাট বলেন, বছরের পর বছর এই অবৈধ ওয়েবিল নৈরাজ্য চললেও কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না সরকার।

হাফ পাস আন্দোলনের সমন্বয়ক নাদিম খান নিলয় বলেন, ভাড়া বৃদ্ধির কারণে এখন হাফ ভাড়া আগের ফুল ভাড়ার সমপরিমাণে দাঁড়িয়েছে। প্রতিদিন এত টাকা ভাড়া দেওয়া শিক্ষার্থীদের পক্ষে অসম্ভব।