পরিবেশ রক্ষা ও যানজট কমাতে শিক্ষার্থীদের পরিবহনে নিজস্ব বাস সার্ভিস চালু করতে রাজধানীর স্কুল কর্তৃপক্ষগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

সোমবার রাজধানীর বনানীর একটি হোটেলে 'বাংলাদেশ'স রোড টু নেট-জিরো (কার্বন নিউট্রালিটি)- রোল অব ইন্ডাস্ট্রি অ্যান্ড কমার্স' শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ-জার্মান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (বিজিসিসিআই) অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে।

তিনি বলেন, ঢাকা শহরের স্কুলগুলোতে বিশেষ করে ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলগুলোর সামনে শত শত গাড়ি দেখতে পাওয়া যায়। একজন শিক্ষার্থীর জন্য একটি গাড়ি ব্যবহার করা হয়। পরিবেশ রক্ষায় ও যানজট কমাতে স্কুলবাস চালু করতে হবে। এর ফলে প্রাইভেট গাড়ির ব্যবহার কমে যাবে। স্কুলবাস সার্ভিস চালু হলে পরিবেশ দূষণ কমবে, যানজট কমবে এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যেও সামাজিক বন্ধনও সুদৃঢ় হবে।

তিনি আরও বলেন, আমি ইতিমধ্যে কয়েকটি স্কুলের শিক্ষকদের সাথে কথা বলেছি। তারা এ বিষয়ে একমত পোষণ করেছেন। শিক্ষার্থীরা সবাই মিলে স্কুলবাসে যাতায়াত করলে তারা আনন্দ পাবে এবং শিক্ষার্থীদের মধ্যে সুসস্পর্ক সৃষ্টি হবে।

আতিকুল ইসলাম বলেন, স্কুলবাসগুলোতে সিসি ক্যামেরাসহ আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে বাচ্চাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে। আমরা জ্বালানি সাশ্রয়ের লক্ষ্যে পরিবেশবান্ধব বৈদ্যুতিক স্কুলবাস চালু করার জন্যও কাজ শুরু করেছি।

বিজিসিসিআই'র সহ-সভাপতি সিভাস্টিয়ান গ্রোর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জলবায়ু বিজ্ঞানী গবেষণা সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ক্লাইমেট চেঞ্জ অ্যান্ড ডেভলপমেন্টে'র পরিচালক ড. সালিমুল হক, বিজিসিসিআই'র সিনিয়র সহ-সভাপতি তরুণ পাটোয়ারী প্রমুখ।