জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু বলেছেন, গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কোন আত্মত্যাগই বৃথা যাবে না। শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে যারা হামলা করে বিএনপি নেতাকর্মীদের যারা রক্ত ঝড়াচ্ছে তাদের বিচার একদিন হবেই। রক্তের প্রতিটি কণার প্রতিশোধ নেওয়া হবে।

বুধবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির আহত নেতাকর্মীদের দেখতে গিয়ে তিনি এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন। এদিন বিকেলে জেলা সদরে মুক্তারপুরে পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে গুরুতর আহত জাহাঙ্গীর মাদবর, তারেক হোসেন ও শাওনকে মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকায় আনা হয়।

সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু বলেন, এই অবৈধ সরকারের পতনের জন্য জনগণ রাজপথে নেমে এসেছে। এখন তাদের আজ্ঞাবাহ আর দলীয় পুলিশ দিয়ে, প্রশাসন দিয়ে আর রক্ষা হবে না। পতন তাদের অনিবার্য।

যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মোনায়েম মুন্না বলেন, এখনো আন্দোলন শুরুই হয়নি। আন্দোলনতো হবে সামনে। তখন পালিয়েও রেহাই পাবেন না। যারা আজকে অতি উৎসাহী হয়ে গণতন্ত্রকামীদের বুকে গুলি করছেন তাদেরকে জনতার বিচারের মুখোমুখি করা হবে।

এ সময় যুবদলের অন্যান্য কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।