ঢাকা বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

‘দে ধাক্কা’ কিশোর গ্যাংয়ের হোতাসহ গ্রেপ্তার ৫

‘দে ধাক্কা’ কিশোর গ্যাংয়ের হোতাসহ গ্রেপ্তার ৫

প্রতীকী ছবি

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ২২:১২

রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকায় ‘ডায়মন্ড’ ও ‘দে ধাক্কা’ কিশোর গ্যাংয়ের অন্যতম হোতা জুলফিকার আলীসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৩। তাদের কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, ম্যাগাজিন ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব জানায়, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় মোহাম্মদিয়া হাউজিং সোসাইটি এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় কিশোর গ্যাং পরিচালনা চক্রের অন্যতম হোতা জুলফিকার আলী (৩৭), তার সহযোগী হারুন অর রশিদ (৩৮), শামছুদ্দিন বেপারি (৪৮), কৃষ্ণ চন্দ্র দাস (২৮) ও সুরুজ মিয়াকে (৩৯) গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, জুলফিকার ‘ডায়মন্ড’ ও ‘দে ধাক্কা’ নামে দুটি কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ করত। এলাকার কিছু বেপরোয়া ও মাদকসেবী কিশোরকে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে গ্যাংয়ের সদস্য করত। তাদের ব্যবহার করে অস্ত্র, মাদক কারবার, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, অপহরণ, ডাকাতি ও ভূমি দখলসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছিল জুলফিকার। মোটরসাইকেল ব্যবহার করে রিকশা, ভ্যান, সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও বাসযাত্রীদের টার্গেট করে ছিনতাই করত।

জুলফিকার অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করেছে। পরে পড়াশোনা বাদ দিয়ে এলাকায় একটি ওয়ার্কশপে কাজ শুরু করে। কিছুদিন পর নারায়ণগঞ্জে পিকআপে হেলপারি শুরু করে। এক কোম্পানির মালপত্র চুরির অভিযোগে তার নামে মামলা হয়। তখন সে সৌদি আরবে চলে যায়। 

২০২১ সালে দেশে ফিরলে গ্রেপ্তার হয় এবং দুই মাস জেল খাটে। জামিনে বেরিয়ে মোহাম্মদপুরে চলে আসে এবং টিউবওয়েল মিস্ত্রি হিসেবে কাজ শুরু করে। ২০২২ সালে কিশোর গ্যাং গড়ে তোলে।

আরও পড়ুন

×