ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এইচবি এভিয়েশনের সার্টিফিকেট অ্যাওয়ার্ড প্রদান

এইচবি এভিয়েশনের সার্টিফিকেট অ্যাওয়ার্ড প্রদান

ছবি: সংগৃহীত

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৬:০৯

এইচবি এভিয়েশন ট্রেনিং সেন্টারের উদ্যোগে সপ্তম ‘এইচবি সার্টিফিকেট অ্যান্ড অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান করা হয়েছে। গত শুক্রবার রাজধানীর বিয়াম মিলনায়তনে এই অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এছাড়াও ৭ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানে ২০২৩ সালে এয়ারটিকেটিং প্রফেশনের উপর কোর্স সম্পন্ন করা ২৫০ শিক্ষার্থীকে সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। যারা ট্রেনিং গ্রহণ করে উদ্যোক্তা হয়েছেন তাদেরকে সম্মাননা দেওয়া হয়।

অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে এইচবি এভিয়েশনের তৃতীয় ব্রাঞ্চ হিসেবে সিলেট শাখার উদ্বোধন করা হয়। একই সঙ্গে বৃহৎ আকারে এভিয়েশন সেক্টরে কাজের পাশাপাশি ট্যুরিজম সেক্টরে আরও দক্ষ জনবল তৈরি করার লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটি তার আগের নাম ‘এইচবি এভিয়েশন ট্রেনিং সেন্টার পরিবর্তন’ করে ‘এইচবি এভিয়েশন অ্যান্ড ট্যুরিজম ইন্সটিটিউট’ করার ঘোষণা দিয়েছে।

এইচবি এভিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান যাকি এস বারী বলেন, গত ৬ বছর ধরে এইচবি এভিয়েশন ট্রেনিং সেন্টার উন্নত প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ জনবল তৈরি করছে। এইচবি এভিয়েশন শুধুমাত্র ট্রেনিংই প্রদান করছে না, ট্রেনিং শেষে শিক্ষার্থীদের চাকরি বা ব্যবসার ক্ষেত্রেও সহযোগিতা করে আসছে। তিনি বলেন, এইচবি এভিয়েশন তাদের শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে দেশের বিভিন্ন শীর্ষ ট্রাভেল ট্রেড প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করেছে। এর ফলে এইচবি এভিয়েশনের শিক্ষার্থীরা প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে সরাসরি কাজ করতে পারছেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সাবেক সংসদ সদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার হারুনুর রশিদ। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সেইবার বাংলাদেশের কান্ট্রিহেড সাইফুল হক, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব প্রীতম আহমেদ ও দেশের শীর্ষস্থানীয় ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা।

প্রসঙ্গত, এইচবি এভিয়েশন ট্রেনিং সেন্টার ২০১৮ সাল থেকে এয়ারটিকেটিং প্রফেশনের উপর প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে শাখা রয়েছে। এ পর্যন্ত বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলার প্রায় ১ হাজার শিক্ষার্থী ট্রেনিং গ্রহণ করেছে।

আরও পড়ুন

×