ঢাকা রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

বিমানবন্দর এলাকায় উৎপাত টোকাইদের

বিমানবন্দর এলাকায় উৎপাত টোকাইদের

পথচারীর.পা জড়িয়ে টাকা দাবি

 শহিদুল আলম

প্রকাশ: ০১ মার্চ ২০২৪ | ২৩:৩৩ | আপডেট: ০২ মার্চ ২০২৪ | ১২:২০

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এলাকায় বেড়ে গেছে টোকাইদের উৎপাত। একমাত্র ফুট ওভারব্রিজ ছিন্নমূল শিশুদের দখলে। কেউ পার হতে গেলেই পা জড়িয়ে ধরে টাকা দাবি করে। চাহিদা অনুযায়ী না পেলে টেনে জামাকাপড় পর্যন্ত ছিঁড়ে ফেলে তারা। এতে বিব্রত হন বিদেশিরা। আবার প্রায়ই ঘটছে ছিনতাইয়ের ঘটনা। আর হকাররা ফুটপাতে বসিয়েছে দোকান।
পথচারীদের অভিযোগ, বিমানবন্দরের মতো গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় টোকাই, ড্যান্ডিখোর, পকেটমার, ছিনতাইকারীর কবলে পড়ে প্রতিদিন কেউ না কেউ সর্বস্বান্ত হচ্ছেন। অথচ সব দেখেও না দেখার ভান করছে পুলিশ।

বুধবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে শাহজালাল বিমানবন্দরের সামনে ঢাকা-গাজীপুর মহাসড়কের একমাত্র ফুট ওভারব্রিজ পার হচ্ছিলেন আরমান আলী। সঙ্গে খালাতো ভাই চান মিয়া। হঠাৎ ছয় বছর বয়সী ছেলে এসে পা জড়িয়ে ধরে তাঁর কাছে ১০০ টাকা দাবি করে। না দেওয়ায় শুরু হয় টানাহ্যাঁচড়া। বাধ্য হয়ে ১০০ টাকা দিয়ে মুক্তি পান দুই ভাই।
আরমান সমকালকে জানান, তিন বছর পর মালয়েশিয়া থেকে বড় ভাই লুৎফর রহমান দেশে ফিরছেন। তাঁকে নিতে গাজীপুরের কাপাসিয়া থেকে বিমানবন্দরে যাওয়ার সময় ফুট ওভারব্রিজে বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন। এলাকায় পুলিশের টহল জোরদার না থাকায় টোকাইরা পথচারীদের চরম হয়রানি করছে বলেও জানান তিনি।
জানা গেছে, ফুট ওভারব্রিজে সবচেয়ে নাজেহাল হচ্ছেন বিদেশিরা। টোকাইদের একটি চক্র বাড়তি অর্থের আশায় দলবদ্ধ হয়ে তাদের পা ধরে টানাহ্যাঁচড়া করে। না দিলে শার্ট-প্যান্ট এমনকি ব্যাগও ছিঁড়ে ফেলে।
এ ছাড়া এলাকায় সন্ধ্যা নামলেই মাদকসেবীরা আড্ডা দেয়। বাসের অপেক্ষায় থাকা যাত্রীরা প্রতিনিয়ত ছিনতাইয়ের শিকার হন। মোবাইল ফোনে কথা বলতে গেলে মুহূর্তে বাসের জানালা দিয়ে ছো মেরে নিয়ে চম্পট দিচ্ছে দুর্বৃত্তরা।

ভুক্তভোগীরা জানান, অভিযোগ নিয়ে বিমানবন্দর থানায় যেতে চাইলে বিমানবন্দর এপিবিএন সদস্যদের নানা জেরার মুখে পড়তে হয়। ফুটওভারব্রিজের পাশেই বিমানবন্দর পুলিশ বক্স। সেখান অভিযোগ নিয়ে গেলে তারা থানায় যাওয়ার পরামর্শ দেন।
তবে পুলিশের দাবি, এলাকায় নিয়মিত টহল ও ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদে অভিযান চালানো হয়। বিমানবন্দর পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এসআই সফিকুল ইসলাম সমকালকে জানান, গত দুই মাসে তারা ছিনতাই, মাদকসেবীসহ বিভিন্ন চক্রের ৩৯ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিয়েছেন।
রাজধানীর উত্তরা বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার (ডিসি) মো. শাহজাহান জানান, বিমানবন্দর ফুট ওভারব্রিজের ওপর এ ধরনের কোনো ঘটনার বিষয়ে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রয়োজনে পুলিশের টহল জোরদার করা হবে।

আরও পড়ুন

×