ঢাকা শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত

‘মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে শিক্ষকদের দক্ষ হতে হবে’

.

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৭ মে ২০২৪ | ০৩:৪৯

রাজধানীতে মানসিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থার বর্তমান পরিস্থিতি এবং সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্ব শীর্ষক জাতীয় সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার (১৫ মে) গুলশানের হোটেল লেকশোরের লা ভিটা হলে এ সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত হয়। 

স্কুল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের মানুষের মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং জেলা-উপজেলা পর্যায়ে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ার গুরুত্ব তুলে ধরা হয় এ সিম্পোজিয়ামে। 

আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম। তিনি বলেন, ‘দেশে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে হলে সরকারকে স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করতে হবে।’

স্বাস্থ্যসেবা অধিদপ্তরের এডিজি (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘মানসিক স্বাস্থ্য খাতে গবেষণার অভাব রয়েছে। এ খাতের সমস্যা চিহ্নিত করে দ্রুত তা বাস্তবায়নে সোচ্চার হতে হবে। নয়তো অদূর ভবিষ্যতে এ সমস্যা প্রকট হয়ে দাঁড়াবে।’

শিক্ষকদের মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রশিক্ষণের আওতায় নিয়ে আসা প্রসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মেহজাবীন হক বলেন, ‘স্কুলের শিক্ষকদের মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ে দক্ষ হতে হবে। কেননা তাঁদের হাতেই শিক্ষার্থীরা তৈরি হয়। তাই শিক্ষকরা যেন শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় মানসিক স্বাস্থ্যসেবা দিতে পারেন এই লক্ষ্যে তাদেরকে প্রশিক্ষণের আওতায় আনা উচিত।’

এডিডি ইন্টারন্যাশনালের প্রোগ্রাম ম্যানেজার আব্দুল্লাহ আল হারুন বলেন, ‘সর্বস্তরের মানুষের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যের ব্যাপারে যত্নশীল হতে হবে। সম্প্রতি শিক্ষার্থীদের মাঝে আত্মহত্যার প্রবণতা অনেক বেড়েছে। এবার এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়েছে।’ স্কুলগুলোতে মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক ক্যাম্পেইন চালু রাখার আহ্বান জানান তিনি। 

মানসম্মত মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবা ও মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক বিভিন্ন উদ্যোগকে শক্তিশালী করার জন্য সরকারি- বেসরকারি অংশীদারিত্ব বাড়ানোর সুযোগ তৈরি হবে বলে জানান বক্তারা। 

সিম্পোজিয়ামে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. হেলাল উদ্দিন আহমেদ, এডিডি ইন্টারন্যাশনালের এশীয় অঞ্চলের পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম, ডিজেএবেল চাইল্ড ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক নাসরিন জাহান প্রমুখ। 

সিম্পোজিয়াম আয়োজন করেছে নন-কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল প্রোগ্রাম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং এডিডি ইন্টারন্যাশনাল। সহযোগী হিসেবে ছিল ডিজেএবেল চাইল্ড ফাউন্ডেশন, ইনোভেশন ফর ওয়েলবিং ফাউন্ডেশন ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাসিরুল্লাহ সাইকোথেরাপি ইউনিট।

আরও পড়ুন

×