সিরাজগঞ্জের তাড়াশে আসন্ন পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে সগুনা ইউনিয়নের সংরক্ষিত (নারী) আসনের ৬, ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন তৃতীয় লিঙ্গের রনি। মঙ্গলবার তিনি কর্মী-সমর্থক নিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আখতারুজ্জামানের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এ সময় রনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের তৃতীয় লিঙ্গের স্বীকৃতি দিয়ে সমাজে সম্মানের সঙ্গে বসবাস করার সুযোগ করে দিয়েছেন। তাই আমাদের দায়িত্ব আছে এই দেশের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর। তাই আমি নির্বাচিত হলে ওয়ার্ডের তৃতীয় লিঙ্গের জনগোষ্ঠীর পাশাপাশি সব নাগরিকের অধিকার ও নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাব। এ ছাড়া প্রথমেই ওয়ার্ড মাদকমুক্ত করার কাজ শুরু করব।

এদিকে সগুনা ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের ৬, ৭ ও ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পদে তৃতীয় লিঙ্গের রনির মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেন তাড়াশ উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা একেএম মনিরুজ্জামান।

২০০৯ সালের ডিসেম্বরে তৃতীয় লিঙ্গদের সর্বপ্রথম ভোটাধিকার দেওয়া হয়। ২০১৩ সালে তাদের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেওয়া-সংক্রান্ত নীতিমালা মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনুমোদন পায়। ২০১৪ সালের ২৬ জানুয়ারি তৃতীয় লিঙ্গের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট প্রকাশ করে সরকার। ভোটার তালিকায় নারী ও পুরুষের পাশাপাশি তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে আরেকটি পরিচয় অন্তর্ভুক্তির সিদ্ধান্ত নেয় নির্বাচন কমিশন।