সয়াবিন তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে নাগরিক ঐক্যের সভাপতি মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠাসহ সব ক্ষেত্রে এই সরকার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। দ্রব্যমূল্য ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে গেছে।

শুক্রবার এক ভিডিও বার্তায় তিনি আরও বলেন, ঈদের আগে সরকার অনেক নাটক করেছে। তারা ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের ওপর দায় চাপানোর চেষ্টা করেছে। অথচ এসব সিন্ডিকেট আওয়ামী লীগ সরকার চালায়। খুচরা বিক্রেতারা ঈদের আগে বেশি দামে তেল বিক্রি করায় সরকার তাদের জরিমানা করেছে। তিন দিনের ব্যবধানে এখন সরকারই দাম বৃদ্ধি করেছে। তাহলে এখন সরকারকে জরিমানা দিতে হবে।

মান্না বলেন, সরকারি দলের সাধারণ সম্পাদক বললেন কুচক্রী মহল ষড়যন্ত্র করে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি করছে। একই দিন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সয়াবিন তেলের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা করেছে। তার মানে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সেই ষড়যন্ত্রকারী কুচক্রী মহল। ভোট ডাকাত, স্বৈরাচার সরকার জনগণের তোয়াক্কা করে না। তাই তারা যাচ্ছেতাই করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, দণ্ডপ্রাপ্ত আসামির কথা বলে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসা নিতে দেওয়া হয়নি। আর ১০ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত হাজী সেলিম নির্বিঘ্নে বিদেশে যান, আবার ফিরে আসেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আবার তার পক্ষে সাফাই গান যে তিনি নাকি আইন মেনে বিদেশে গিয়েছিলেন। আমি জানতে চাই, কি সেই আইন?

ক্ষমতাসীনদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে মান্না বলেন, এখন সময় সব বিরোধী শক্তির ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের। এই সরকারকে ক্ষমতায় রেখে ন্যূনতম গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্ভব নয়। তাই গণআন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারকে অপসারণ করে একটি অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করতে হবে। সেই সরকার বর্তমান ক্ষমতাসীনদের ১৩ বছরের জঞ্জাল দূর করে একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করবে।