পদ্মা সেতুতে যান চলাচল শুরু হওয়ার প্রথমদিনই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়। সেখানে দেখা যায়, হলুদ শার্ট ও প্যান্ট পরিহিত এক যুবক পদ্মা সেতুর নাট-বোল্ট খুলছেন। এমন ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। অনেকে তার ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, দ্রুত তাকে আইনের আওতায় নেওয়া হোক।

শেষ পর্যন্ত আটক করা হলো ওই যুবককে। পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) একটি টিম রাজধানীর শান্তিনগর এলাকা থেকে রোববার তাকে আটক করে। এরপর জানা যায়, তার নাম বায়েজিদ তালহা। গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী, বাবা ঠিকাদার।

তালহা পড়াশোনা করেছেন ঢাকা কলেজে। নিজের প্রাইভেটকার নিয়ে রোববার পদ্মা সেতু এলাকায় যান তিনি। কেন, কী কারণে সেতুর নাট খুলতে গেলেন- এটা জানতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে পুলিশ এরই মধ্যে জানতে পারে, নাট খোলার পর টিকটক ভিডিও করে তা শেয়ার করেছিলেন তালহা।


সিআইডির একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানান, তালহা টিকটক ভিডিও বানায়। আর ওই ভিডিও সে নিজের টিকটক প্রোফাইলে পোস্ট করে। তবে যখন এটা নিয়ে তীব্র সমালোচনা হয়, তখন সে প্রোফাইল থেকে ওই ভিডিও মুছে ফেলে। একই সঙ্গে নিজের ফেসবুক প্রোফাইল ডিঅ্যাক্টিভেট করে মোবাইল ফোন বন্ধ করে দেয়।

৩৪ সেকেন্ডের ভিডিওতে তালহাকে বলতে শোনা যায়, 'এই লুজ দেহি, লুজ নাট, আমি একটা ভিডিও করতেছি, দেহ। এই হলো পদ্মা সেতু আমাদের... পদ্মা সেতু। দেখো আমাদের হাজার হাজার কোটি টাকার পদ্মা সেতু। এই নাট খুইলা এহন আমার হাতে।' এ সময় পাশে থেকে আরেক ব্যক্তি বলেন, 'ভাইরাল কইরা ফালায়েন না।'

পুলিশের আরেক কর্মকর্তা জানান, তালহার এই কাজটি পরিকল্পিত কোনো ষড়যন্ত্র কিনা, তা যাচাই করা হচ্ছে।

টিকটক করার জন্য আগেই রেঞ্চ দিয়ে নাট-বোল্ট খুলে রেখে তারপর ওই যুবক হাত দিয়ে তা খোলে- সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এমন গুঞ্জন নিয়ে আলোচনা প্রসঙ্গে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার (সাইবার ইন্টেলিজেন্স) রেজাউল মাসুদ বলেন, আমরা সবকিছুই খতিয়ে দেখছি।


তিনি আরও জানান, সেতুর আশপাশে সিসি ক্যামেরা বা তার সঙ্গে অন্য যারা ছিলেন, তাদের ব্যাপারেও খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। সোমবার সংবাদ সম্মেলনে এ ব্যাপারে বিস্তারিত তুলে ধরা হবে। তালহার বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা হচ্ছে।

রেজাউল আরও বলেন, তালহা আরও কিছু তথ্য দিচ্ছে। এসব যাচাই-বাছাই চলছে।

একইদিনে ভাইরাল হওয়া আরেকটি ছবিতে পদ্মা সেতুর ওপরে একজনকে প্রস্রাব করতে দেখা যায়। ওই যুবককেও খুঁজছে পুলিশ। এ ছাড়াও চেকশার্ট পরিহিত আরেক যুবককে নাট-বোল্ট খুলতে দেখা যায়। তাকেও খুঁজছে সিআইডি।

পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম সমকালকে বলেন, সেতুর টোল প্লাজার সিসিটিভি ফুটেজে ওই যুবককে রেঞ্চ নিয়ে প্রবেশ করতে দেখা গেছে।

পটুয়াখালী জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আল হেলাল নয়ন বলেন, তালহা একসময় পটুয়াখালীতে ছাত্রদলের রাজনীতি করত। ওই সময় বিপ্লব গাজী ছাত্রদলের সভাপতি ছিলেন। তবে অনেক দিন ধরে বায়েজিদ এলাকায় নেই।