ডিজেলের আমদানি শুল্ক কমানো ও আগাম কর প্রত্যাহারের একদিনের মাথায় ডিজেল, পেট্রোল, অকটেন ও কেরোসিনের দাম কমানোর সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই। 

সংগঠনটির সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেছেন, সংকটময় বৈশ্বিক পরিস্থিতির মধ্যে দেশে জ্বালানি তেলের দাম পুনঃসমন্বয়ের ফলে অর্থনীতির ওপর চাপ কমবে। মঙ্গলবার সংগঠনটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

এর আগে গত ১৪ আগস্ট শুল্ক কর প্রত্যাহার করে জ্বালানি তেলের মূল্য পুনঃসমন্বয়ের অনুরোধ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছিল এফবিসিসিআই। গত ২৮ আগস্ট ডিজেলের আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ এবং ৫ শতাংশ আগাম কর প্রত্যাহার করে প্রজ্ঞাপন জারি করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এফবিসিসিআই সভাপতি মনে করেন অর্থনীতির ওপর চাপ এড়াতে প্রধানমন্ত্রীর সময়োপযোগী দিক নির্দেশনা অনুযায়ী রাজস্ব বোর্ড জ্বালানি তেলের ওপর থেকে শুল্ক কমানো ও কর প্রত্যাহারের মতো অর্থনীতিবান্ধব সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এতে করে পণ্য উৎপাদন ও পরিবহন খরচসহ সামগ্রিক ব্যবসার ব্যয় কমবে। কৃষিখাতে সেচও আগের তুলনায় সাশ্রয়ী হবে। এর ফলে সামগ্রিক মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণও সহজ হবে।

একই সঙ্গে জ্বালানি তেলের দাম কমানোর ফলে যে হারে উৎপাদন ও ব্যবসার খরচ কমবে, সে হারে পণ্য ও সেবার দাম কমানোর জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান এফবিসিসিআই সভাপতি।