বাঞ্ছারামপুরে যুবলীগ নেতাকে ঘরে ঢুকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯      

বাঞ্ছারামপুর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় সুমন মিয়া (৩৫) নামের স্থানীয় এক যুবলীগ নেতাকে ঘরে ঢুকে গুলি করে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। সোমবার রাত ১টার দিকে উপজেলার সলিমাবাদ ইউনিয়নের পাইকারচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে।

নিহত সুমন সলিমাবাদ ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাইকারচর গ্রামের মৃত মনু মিয়ার ছেলে। এ  ঘটনায় আব্দুল আওয়াল (৬০) নামের একজন গুলিবিদ্ধ ও অপর চারজন আহত হয়েছে। আহতরা হলেন- কামরুজ্জামান (৩৭), জালাল মিয়া (৪০), মনির হোসেন (৩৫) ও করিম (৪০)। তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানান, সলিমাবাদ ইউনিয়নের তাতুয়াকান্দি গ্রামের অলি মেম্বার ও ইকবাল হোসেনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে  বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে সোমবার রাতে ইকবালের নেতৃত্বে তার সহযোগীরা অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে পাইকারচর গ্রামে দানা মিয়ার বাড়িতে অলি মেম্বারের সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা সুমন ও আওয়ালকে গুলি করে। বাকিদের টেটা বিদ্ধ করে ও দা দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। পরে আহতদের উদ্ধার করে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসক সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন। বাকিদের ঢাকায় পাঠানো হয়। 

বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ওসি সালাউদ্দিন চৌধুরী জানান, এ ঘটনায় চারজনকে আটক করা হয়েছে।