নোয়াখালীতে করোনায় আরও দু'জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৫

প্রকাশ: ১০ আগস্ট ২০২০   

নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালীর চাটখিল ও সোনাইমুড়ী উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও দু'জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নোয়াখালী জেলায় ৬৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. রবিউল হক’সহ জেলায় আরও ৮৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। 

সোমবার দুপুরে নোয়াখালী জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার এসব তথ্য জানান।

চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ও করোনা ফোকাল পার্সন ডা. তামজিদ হোসাইন জানান, উপজেলার পরকোর্ট ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড দশগরিয়া এলাকার বাসিন্দা আবুল বাসার (৭০) অসুস্থ অবস্থায় ৫ আগস্ট পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়ে যান। ৬ আগস্ট আসা রিপোর্টে তার করোনা শনাক্ত হয়। রোববার রাতে নিজ বাড়িতে হোম আইসোলেশনে থাকা অবস্থায় তিনি মারা যান। এ নিয়ে চাটখিলে করোনায় ৬ জনের মৃত্যু হলো।

সোনাইমুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ও করোনা ফোকাল পার্সন ডা. বিবেক দেব জানান, করোনা উপসর্গ নিয়ে গত ৩ আগস্ট নমুনা দেন ইউনিয়নের কালুয়াই গ্রামের বাসিন্দা মৌলভী হাসমত উল্যাহ (৯০)। ৪ আগস্ট করোনা পজিটিভ আসার পর হোম আইসোলেশন থেকে তাকে নোয়াখালী কোভিড-১৯ ডেডিকেটেড হসপিটাল শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে পাঠানো হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার রাতে মারা যান তিনি। এর কয়েকদিন আগে করোনা উপসর্গ নিয়ে ঢাকায় নেওয়া হলে মারা যান ওই ব্যক্তির ছেলে আনোয়ার হোসেন। মৃতের পরিবারের আরও তিনজন করোনায় আক্রান্ত রয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার বলেন, জেলায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আরও ৮৫ জন। এর মধ্যে সদরে ২৫, সুবর্ণচরে ৬, বেগমগঞ্জে ১২, সোনাইমুড়ীতে ৪, চাটখিলে ২, সেনবাগে ২, কোম্পানীগঞ্জে ২২ ও কবিরহাটে ১২ জন। জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৫৭৬ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২৫১৮, মারা গেছেন ৬৯ ও আইসোলেশনে রয়েছেন ৯৮৯ জন।