বিদেশি দূতাবাসগুলো আইন ভঙ্গ করেছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশ: ৩১ জানুয়ারি ২০২০     আপডেট: ৩১ জানুয়ারি ২০২০   

 সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, পর্যবেক্ষক নিয়োগে বিদেশি দূতাবাসগুলো আইন ভঙ্গ করেছে। আইন মতে, আমাদের দেশে আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক যারা হন তারা কেউ বাংলাদেশি নাগরিক হতে পারবেন না।

শুক্রবার রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে করোনাভাইরাস নিয়ে এক বৈঠকের পরে তিনি সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা মনে করি- এখানে যেসব বিদেশি সংস্থা আছে বা দূতাবাস আছে তারা তাদের কোড অফ কনডাক্ট জানে। আমাদের দেশের আইন অনুযায়ী আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষককে অবশ্যই বিদেশি নাগরিক হতে হবে। কিন্তু তারা তাদের বাংলাদেশি কর্মচারীদের আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক নিয়োগ করে আইন ভঙ্গ করেছে।

তিনি বলেন, যেকোনো দূতাবাস যেকোনো বড় রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীর সঙ্গে আলাপ করতে পারে। কিন্তু তারা আমাদের নিয়ম ভঙ্গ করতে পারে না। তাদের আরও দায়বদ্ধতা থাকা উচিত।

এটি থামাতে মিশনগুলোকেও দায়িত্ব নিতে হবে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, তারা যেহেতু আইন জানে, তাদের বলে দেওয়া হয়েছে। সুতরাং তাদের যে বাংলাদেশি কর্মচারী আছে তাদের মধ্যে যাদের তারা আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক বানিয়েছে, তাদের কোনও নির্বাচন কেন্দ্রে পাঠানো উচিত হবে না।

উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশনের ‘সিটি করপোরেশন নির্বাচন পরিচালনা ম্যানুয়াল’ থেকে পাওয়া তথ্যানুসারে, বিদেশি পর্যবেক্ষক হিসেবে শুধুমাত্র বিদেশি নাগরিকদের আবেদনের কথা স্পষ্ট করে উল্লেখ থাকলেও ঢাকায় বিভিন্ন দেশের হাইকমিশন ও অ্যাম্বাসিতে কর্মরত বাংলাদেশিরা আবেদন করেন বিদেশি পর্যবেক্ষক হিসেবে। বিদেশি দূতাবাসে চাকরি করলেও তারা বাংলাদেশি, অথচ আসন্ন সিটি করপোরেশন নির্বাচন পর্যবেক্ষণে তাদের বিদেশি পর্যবেক্ষক হিসেবে কার্ড দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।