যে আইনে সাজা সাময়িক স্থগিত করা হয়েছে, সেই আইনেই খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার জন্য সরকার অনুমতি দিতে পারে বলে দাবি করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন। শনিবার নগরের নাসিমন ভবনের দলীয় কার্যালয়ের মাঠে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রাম মহানগর, উত্তর ও দক্ষিণ জেলা ছাত্রদল আয়োজিত কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই দাবি তুলে ধরেন।

ডা. শাহাদাত বলেন, খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে আইনের কোনো বাধা নেই। বাধা হচ্ছে প্রধানমন্ত্রী ও সরকার। সরকার প্রধানের প্রতিহিংসার কারণেই বানোয়াট মামলায় সাজা দিয়ে তাকে কারাগারে নেওয়া হয়। পরে সাজা অস্থায়ীভাবে স্থগিত করে বাড়িতে রাখা হয়।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহসভাপতি আশরাফুল আলম ফকির লিংকন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, খালেদা জিয়াকে বাড়িতে থাকতে দিয়েছেন, এটাই নাকি উনি বেশি করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক প্রতিহিংসা এবং খালেদা জিয়ার জনপ্রিতার কারণে বানোয়াট মামলায় তারই নির্দেশে সাজা দেওয়া হয়েছে। সবকিছু প্রধানমন্ত্রীর ইঙ্গিতেই হচ্ছে।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্যের সমালোচনা করে দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান বলেন, তিনি তো চোখে কালো চশমা পরে থাকেন, তাই বিএনপির মিছিল দেখেন না। তা ছাড়া তিনি তো সারাদিন বাসায় বসে থাকেন।

চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের আহ্বায়ক সাইফুল আলমের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইসহাক সরকার, দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শহীদুল আলম শহীদ, উত্তর জেলা ছাত্রদলের সভাপতি জাহিদুল আফসার জুয়েল ও সাধারণ সম্পাদক মনিরুল আলম জনি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদল সভাপতি খোরশেদ আলম, দক্ষিণ জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মো. মহসিন, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আসিফ চৌধুরী লিমন প্রমুখ।