পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গ্রহণ ও তদন্ত করতে স্বাধীন ‘কমপ্লেইন্ট কমিশন’ গঠন করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

রোববার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মো. কামরুল হোসেন মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল দেন।

বিবাদীদের তিন সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তদন্তে ‘পুলিশ অভিযোগ তদন্ত কমিশন’ নামে একটি স্বাধীন কমিশন গঠনের নির্দেশনা চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের ১০২ জন আইনজীবী চলতি বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারি একটি রিট করেন। 

রিট আবেদনকারীরা বলেন, ২০০৭ সালে পুলিশ অধ্যাদেশ নামে আইনের খসড়া প্রস্তুত করা হয়। প্রস্তাবিত অধ্যাদেশের ৭১ দফায় ‘পুলিশ কমপ্লেইন্ট কমিশন’ গঠনের বিধান প্রস্তাব করা হয়। তবে ওই খসড়া অধ্যাদেশ আইনে পরিণত হয়নি। রিটে কমিশন গঠনের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি, অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ মহাপরিদর্শক, অবসরপ্রাপ্ত সচিব, আইনের শিক্ষক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠনের নির্দেশনাও চাওয়া হয়।