অ্যাজমা ও শ্বাসকষ্টের রোগীর ফুসফুসে ওষুধ প্রয়োগের যন্ত্র নেবুলাইজারের ভেতর থেকে অবৈধভাবে দেশে আনা এক কেজি ১৬০ গ্রাম স্বর্ণ জব্দ করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুবাইফেরত এক যাত্রীর কাছ থেকে এ স্বর্ণ জব্দ করা হয়।

প্রায় ৮০ লাখ টাকা বাজার মূল্যের ১১টি স্বর্ণের পাত অবৈধভাবে আনার অভিযোগে মো. আলী আহমদ (৩৫) নামে ওই যাত্রীকে আটক করেছে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। আলী আহমদ সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার উজান মেহেরপুর দরগারবাজার গ্রামের বাসিন্দা।

এ ঘটনায় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ স্বর্ণ চোরাচালানের অভিযোগে আলী আহমদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে।

ওসমানী বিমানবন্দর কাস্টমসের সহকারী কমিশনার মো. আল আমিন জানান, শুক্রবার সকাল ৭টায় দুবাই থেকে বাংলাদেশ বিমানের বিজি-২৪৮ ফ্লাইটে করে সিলেটে আসেন আলী আহমদ (পাসপোর্ট নম্বর ইএ-০৬৭৫৫০৭)। তিনি গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার সময় কর্তব্যরত কাস্টমস কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়।

এসময় আলী আহমদের কাছে অবৈধভাবে আনা কোনো জিনিস আছে কি-না, জানতে চাইলে তিনি কাস্টমস কর্মকর্তাদের কাছে নেতিবাচক উত্তর দেন। এরপর তার শরীর ও ব্যাগেজ তল্লাশি করে একটি কার্টনের মধ্যে নেবুলাইজার মেশিনে বিশেষভাবে লুকিয়ে রাখা স্বর্ণের ১১ পিস পাত পাওয়া যায়।

ইতোপূর্বেও বাংলাদেশ বিমানের দুবাই থেকে আসা ফ্লাইটে যাত্রীদের কাছ থেকে বা পরিত্যক্ত অবস্থায় বিপুল পরিমাণ স্বর্ণ জব্দ করা হয়েছে।