খুলনায় চালককে খুন করে ইজিবাইক ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার সকাল ৯টার দিকে নগরীর সোনাডাঙ্গা থানার দারুস সালাম মহল্লার একটি ডোবা থেকে ইজিবাইক চালক নয়নের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে তাকে হত্যা করা হয়। নিহত নয়ন বটিয়াঘাটা উপজেলার চক্রাখালি গ্রামের কবীর হোসেনের ছেলে।

এদিকে শুক্রবার রাত ২টার দিকে নগরীর ময়ূরী ব্রিজ এলাকা থেকে একটি ইজিবাইকসহ হৃদয় ও নয়ন নামের দুই জনকে আটক করে নগরীর হরিণটানা থানা পুলিশ। সকালে লাশ উদ্ধারের ঘটনা শুনে তাদের সোনাডাঙ্গা থানায় হস্তান্তর করা হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তারা ইজিবাইক ছিনতাই ও হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে।

শনিবার বিকালে খুলনার মহানগর হাকিম সুমী আহমেদের আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন হৃদয় ও নয়ন। পরে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সোনাডাঙ্গা থানার ওসি মমতাজুল হক সমকালকে জানান, স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে খবর পেয়ে শনিবার সকালে দারুস সালাম মহল্লার একটি ডোবার কচুরিপানার মধ্য থেকে নয়নের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরিবারের সদস্যরা তার মরদেহ শনাক্ত করেন।

ওসি জানান, দুর্বৃত্তরা নয়নকে হত্যা করে তার ইজিবাইকটি ছিনিয়ে নিয়েছিল। পরে পালানোর সময় হরিণটানা পুলিশের কাছে তারা ধরা পড়ে। সকালে তাদের সোনাডাঙ্গা থানায় হস্তান্তর করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। ছিনতাই করা ইজিবাইকটি পুলিশ জব্দ করেছে।