ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কামরাঙ্গীরচরে বাসায় নারীর গলাকাটা লাশ, প্রথম স্ত্রীসহ স্বামী আটক

কামরাঙ্গীরচরে বাসায় নারীর গলাকাটা লাশ, প্রথম স্ত্রীসহ স্বামী আটক

প্রতীকী ছবি

সমকাল প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | ১৮:৩২

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে বাসা থেকে রোজিনা আক্তার (২১) নামে এক নারীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় রোজিনার স্বামী আকাশ ওরফে সঞ্জিত ও তার প্রথম স্ত্রী দোলাসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। দাম্পত্য কলহের জেরে গতকাল শুক্রবার এই হত্যাকাণ্ড ঘটে বলে ধারণা পুলিশের।

নিহত রোজিনার স্বজন ও পুলিশের কাছ থেকে জানা গেছে, সনাতন ধর্মাবলম্বী সঞ্জিতের গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের মতলবে। কামরাঙ্গীরচরে মেয়েদের পোশাক তৈরির কারখানা আছে তার। সাত বছর প্রেম করার পর প্রায় দেড় বছর আগে রোজিনার সঙ্গে সঞ্জিতের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন এবং নিজের নাম রাখেন আকাশ। বিয়ের পর দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে কামরাঙ্গীরচর থানার বড় গ্রামের ওয়াপদা এলাকায় ভাড়া বাসায় সংসার শুরু করেন। তাদের সংসারে চার মাসের মেয়ে আছে। দ্বিতীয় বিয়ে করলেও প্রথম স্ত্রী দোলার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে আকাশের। দুই সন্তানসহ দোলা কেরানীগঞ্জে থাকেন। ওই সংসারে নিয়মিত যাতায়াত আছে তার। 

রোজিনার বাবা আব্দুর রহিমের দাবি, রোজিনাকে বিয়ের সময় আকাশ বলেছিলেন প্রথম স্ত্রী দোলার সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করেছেন। কিন্তু বাস্তবে তা করেননি। পরবর্তীতে এ নিয়ে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। রহিমের অভিযোগ– প্রথম স্ত্রী ও আকাশ পরিকল্পনা করে রোজিনাকে খুন করেছেন। হত্যার বিচার দাবি করেন তিনি। 

নিহতের স্বজনরা জানান, রোজিনার বাবার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ার কুমারখালী। তবে বাস করেন কামরাঙ্গীরচরে। সঞ্জিত ও রোজিনা এক সময় কামরাঙ্গীরচরে থ্রি-পিচ তৈরির কারখানায় কাজ করতেন। রোজিনা সঞ্জিতের সহকারী ছিলেন। একসঙ্গে কাজ করার সুবাদে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বছর তিনেক আগে সঞ্জিত নিজেই মেয়েদের পোশাক তৈরির কারখানা দেন কামরাঙ্গীরচরের ওয়াপদা এলাকায়। ওই কারখানাতেও যোগদান করেছিলেন রোজিনা। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে প্রায় দেড় বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। ওয়াপদা এলাকার ভাড়া বাসায় খুন হন রোজিনা। 

পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার রাত ১১টার দিকে খবর পেয়ে ওই বাসা থেকে রোজিনার গলাকাটা লাশ উদ্ধার করে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়। আজ শনিবার লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়। বিকেলে কামরাঙ্গীরচরের আলীনগর কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়। রোজিনা হত্যার ঘটনায় তার স্বামী আকাশ ও আকাশের প্রথম স্ত্রী দোলাসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

কামরাঙ্গীরচর থানার দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা জানান, ঘটনাস্থলের আশপাশ থেকে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। তাতে দেখা গেছে– এক নারী ওই বাসায় ঢুকছে। 

কামরাঙ্গীরচর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে দাম্পত্য কলহের জেরে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে। কয়েকজনকে হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। 

তিনি জানান, শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে রাত ১১টার আগ পর্যন্ত যেকোনো সময় রোজিনাকে কুপিয়ে ও গলা কেটে খুন করা হয়েছে। শনিবার বিকেল পর্যন্ত এ ঘটনায় মামলা হয়নি। 

আরও পড়ুন

×