ইংল্যান্ড

জোফরা আর্চার

জোফরা আর্চার

জোফরা আর্চার


ওয়ানডে ক্যারিয়ার
বয়স
২৪
খেলার ধরন
বোলার
ম্যাচ সংখ্যা
উইকেট
সর্বোচ্চ উইকেট
৬/১

বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ড জাতীয় দলে অভিষেক হয়ে জোফরা আর্চারের। ডেভিড উইলিকে বাদ দিয়ে শেষ সময়ে অবাক করে দলে ডাক পান তিনি। বার্বাডোজের ক্রিকেটার তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অনূর্ধ্ব-১৯ দলেও খেলেছেন। কিন্তু পিঠের ইনজুরি তার ক্যারিয়ার শেষ করে দিতে বসেছিল।

ইনজুরি কাটিয়ে যতদিনে ফিরেছেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ তাকে ভুলতে বসেছে। সেখানকার ঘরোয়া ক্রিকেটের কাঠামোও ভেঙে পড়ছে। আর্চার তাই ইংল্যান্ডে খেলার সিদ্ধান্ত নেন। বার্বাডোজে জন্ম নেওয়া আরেক ইংল্যান্ড পেসার ক্রিস জর্ডান তাকে পথ বাতলে দেন। নিজ ক্লাব সাক্সেসে খেলার সুযোগ করে দেন।

ইংল্যান্ডের নাগরিকত্ব নিয়ে খেলা শুরু করেন আর্চার। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দারুণ বোলিং করেন। ২০১৮ সালে ডাক পান আইপিএলে। কিন্তু আর্চারের ইংল্যান্ড দলের হয়ে খেলার স্বপ্নে বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায় সেখানকার নিয়ম। ইংল্যান্ড জাতীয় দলে খেলতে হলে নাগরিকত্ব নিয়ে সাত বছর ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে হবে। তবেই জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার যোগ্য হবেন। পরে নিয়ম বদলে সেটা তিন বছর করা হয়েছে। চলতি বছরের মার্চে আর্চার ইংল্যান্ড জাতীয় দলে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেন। মে মাসে জাতীয় দল এরপর বিশ্বকাপ দলেও জায়গা পান। এখন মূল আসরে তার নিজেকে প্রমাণের পালা।