ভেন্যু

এজবাস্টন

বিশ্বকাপ ম্যাচ: ০৫

ধারণক্ষমতা: ২৪,৫০০

নির্মাণ: ১৮৮৬

কেবল ইংল্যান্ডেই নয়, ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে সুন্দর স্টেডিয়ামগুলোর একটি বার্কিংহামের এজবাস্টন ক্রিকেট স্টেডিয়াম। এবার বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সেমিফাইনালসহ পাঁচটি ম্যাচ হবে এখানে। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত এ পর্যন্ত চারটি বিশ্বকাপের অন্তত একটি করে সেমিফাইনাল ম্যাচ আয়োজন হয়েছে এই  ভেন্যুতে।

বিশ্বরেকর্ড দিয়েই এজবাস্টনে ক্রিকেটের যাত্রা শুরু হয়। ১৯০২ সালে এখানে অনুষ্ঠিত প্রথম ম্যাচে মাত্র ৩৬ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া, অজি ক্রিকেট ইতিহাসে যা আজও সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড। এছাড়া ১৯২২ সালে এই মাঠেই মাত্র ১৫ রানে অলআউট হয়েছিল হ্যাম্পশায়ার।

কেবল কম রান নয়, প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি রানের রেকর্ডটিও এই মাঠেই হয় (১৯৯৪ সালে ডারহামের বিপক্ষে এই মাঠেই ৫০১ রান করেন রেকর্ডের রাজপুত্র ব্রায়ান লারা)।

ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বকালের সেরা রোমাঞ্চকর ম্যাচ হিসেবে খ্যাত ১৯৯৯ সালের অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচটিও এখানে অনুষ্ঠিত হয়। ম্যাচ টাই হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ফাইনালে ওঠে অস্ট্রেলিয়া। পরে শিরোপাও জিতে নেয় স্টিভ ওয়াহর দল।

এই মাঠে বাংলাদেশের রেকর্ডটা মোটেও সুবিধার নয়। তিনটি ম্যাচ খেলে তিনটিতেই বিশাল ব্যবধানে হার মানতে হয়েছে টাইগারদের। এখানে ২ জুলাই গ্রুপ পর্বের অষ্টম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে খেলবে বাংলাদেশ।