গৃহবধূর লাশ রেখে পালালেন স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন

প্রকাশ: ১৪ আগস্ট ২০১৯      

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় তাসফিয়া আক্তার রাণী (২৩) নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার বিকেলে উপজেলার মনপুর এলাকায় স্বামীর বাড়ি থেকে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে।

রাণী উপজেলার দাবুরপুরা গ্রামের আব্দুল হালিমের মেয়ে এবং একই উপজেলার মনপুর গ্রামের ছগির হোসেনের স্ত্রী।

রাণীর পরিবারের সদস্যদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, কোরবানীর ঈদের পর রাণীর পরিবারের লোকজন তাকে শ্বশুরবাড়ি থেকে আনতে গিয়ে ঘরে তার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে। এ বিষয়ে রাণীর শ্বশুরবাড়ির লোকজন জানায়, সে আত্মহত্যা করেছে। তবে তাদের সন্দেহ হলে বিষয়টি তাৎক্ষণিক থানায় খবর দেয়। এর পরপরই রাণীর লাশ রেখে তার স্বামী ও শ্বশুরসহ ওই পরিবারের লোকজন বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে রাণীর মরেদহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে রাণীর মৃত্যু রহস্যজনক বলে মনে হচ্ছে। তবে ঠিক কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে তা ময়নাতদন্তের পরই সুনিশ্চিতভাবে বলা যাবে।

এদিকে রাণীর ছোট ভাই রানা অভিযোগ করেছেন, যৌতুকের জন্য শ্বশুরবাড়ির লোকজন তার বোনকে প্রায়ই শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতো।