প্রেমে বাধা দেওয়ায় মাকে কুপিয়ে হত্যা করল মেয়ে

প্রকাশ: ০৫ অক্টোবর ২০১৯      

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

প্রেমে বাধা দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মা নাজনীন বেগমকে (৩৮) কুপিয়ে হত্যা করেছে মেয়ে মোমেনা (১৫)। রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের আগমারাই গ্রামে শুক্রবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। 

নিহত নাজনীন বেগম একই গ্রামের আব্দুল মান্নান মৃধার স্ত্রী। পুলিশ মোমেনাকে আটক করেছে। সে রাজবাড়ী ইয়াছিন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

জানা গেছে, মোমেনার সঙ্গে তার নিকটাত্মীয় এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। শুক্রবার মোমেনা তার এক বান্ধবীর বাড়ি গিয়ে ওই যুবকের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ কথা বলে। সন্ধ্যায় বাড়ি ফেরার পর মা নাজনীন এ বিষয়ে জানতে চাইলে দু'জনের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে বঁটি দিয়ে মোমেনা মাকে কোপায়। পরে মোমেনা অন্য একটি ঘরে গিয়ে বসে থাকে। পরিবারের সদস্যরা গুরুতর আহত অবস্থায় নাজনীন বেগমকে প্রথমে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে পাঠানো হয় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। ফরিদপুর থেকে ঢাকায় নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

রাজবাড়ী সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় নিহতের স্বামী বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মেয়ে মোমেনাকে আটক করা হয়েছে।