আড়াইহাজারে আ’লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১

প্রকাশ: ০৬ আগস্ট ২০২০   

আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আনোয়ার হোসেন (৪৭) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার উচিতপুরা ইউনিয়নের কাদিরদিয়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। 

আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে এলাকা শো-ডাউনকে কেন্দ্র কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। এতে আনোয়ার হোসেন নিহত হন। তিনি ওই ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আবু জাফরের বড় ভাই। এছাড়াও সংঘর্ষে আরও পাঁচজন আহত হয়েছেন

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে উচিতপুরা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কাদিরদিয়া গ্রামের আবু জাফরের সঙ্গে একই এলাকার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আবু হানিফের বিরোধ চলছে। বুধবার রাতে আবু জাফরের পক্ষের লোক আবু সুফিয়ান ওই ওয়ার্ডে সম্ভাব্য সদস্য প্রার্থী হিসেবে এলাকায় শোডাউন করলে প্রতিপক্ষ আবু হানিফ মেম্বার ক্ষুব্ধ হন। এ নিয়ে ওই এলাকায় উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। সকাল ৭টার দিকে হানিফ মেম্বারের লোকজন অতর্কিতভাবে আবু জাফরের লোকজনের উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। সংঘর্ষে আনোয়ার হোসেনসহ ছয়জন গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আনোয়ারকে মৃত ঘোষণা করেন। 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, এলাকার প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে হানিফ মেম্বার ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আবু জাফরের লোকদের মধ্যে বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে ইতোমধ্যে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জের মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

এ ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি বলে জানিয়েছেন ওসি।