চেয়ারম্যানের মারধরের শিকার নারী বিচার চাইলেন ইউএনওর কাছে

প্রকাশ: ০৬ আগস্ট ২০২০   

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে রসুলপুর ইউনিয়নে সরকারের দরিদ্রদের জন্য দেওয়া ১০ টাকা কেজির চাল নিতে গিয়ে এক নারী চেয়ারম্যানের মারধরের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। রাশিদা (৪০) নামে ওই নারী বিচার চেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। নির্যাতিত রাশিদা ওই ইউনিয়নের মহাবর পেচারআটা গ্রামের গোলাম রহমানের স্ত্রী।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, স্বামী অসুস্থ থাকায় রাশিদা কার্ড নিয়ে গত ৩০ জুলাই ইউনিয়ন পরিষদে যান। অসুস্থ স্বামীকে ঘরে রেখে যাওয়ায় তিনি স্থানীয় ইউপি মেম্বার জয়নাল আবেদিনকে অনুরোধ করেন চাল একটু আগে দিতে। তিনি বিষয়টি বুঝতে পেরে রাশিদাকে চাল নিতে ডাকেন। রাশিদা চাল নিতে গেলে সফর আলী নামে অন্য এক মেম্বার তাকে তাকে ধাক্কা দেন। রাশিদা ধাক্কা দেওয়ার কারণ জানতে চাইলে পাশে থাকা গ্রাম পুলিশ আবারও তাকে ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দেন। ওই সময়ই এ বিষয়ে চেয়ারম্যানের কাছে বিচার চাইতে গেলে চেয়ারম্যান রাশিদার হাতে থাকা চালের বস্তা মাটিতে ফেলে দেন এবং ঘাড় ধাক্কা মেরে পরিষদের বারান্দায় ফেলে ঝাড়ু দিয়ে পেটাতে থাকেন। খবর পেয়ে রাশিদার অসুস্থ স্বামী আসলে চেয়ারম্যানের লোকজন পরিষদের গেট আটকে দেয়।

এ বিষয়ে জানতে চেয়ারম্যান এমদাদুল হক সরকারের মোবাইল নম্বরে বার বার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

ইউএনও অঞ্জন কুমার সরকার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।