সিলেটের পর্যটনকেন্দ্র জাফলংয়ে বেড়াতে গিয়ে পানিতে ডুবে নিখোঁজ হওয়ার দু'দিন পর ইমরান আহমদ (১৮) নামের এক তরুণ পর্যটকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার বিকেলে জাফলংয়ের জিরো পয়েন্ট এলাকার ডাউকি নদী থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। 

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে জাফলংয়ের ডাউকি নদীর জিরো পয়েন্ট এলাকায় গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হন ইমরান।

জাফলং টুরিস্ট পুলিশের ইনচার্জ মো. রতন শেখ জানান, শনিবার বিকেলের দিকে জাফলংয়ের ডাউকি নদীর জিরো পয়েন্টে এলাকায় তার লাশ ভেসে উঠলে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।

ইমরান টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার ফুলমালির চালা এলাকার ফরিদ মিয়ার ছেলে এবং স্থানীয় ফজরগঞ্জ মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষার্থী ছিলেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গোয়াইনঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পরিমল চন্দ্র দেব বলেন, নিখোঁজ পর্যটক ইমরান আহমদের লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ঈদের পর দিন বৃহস্পতিবার সকালে ইমরান ও তার ১৪ জন বন্ধু টাঙ্গাইল থেকে জাফলংয়ে বেড়াতে আসেন। দুপুরের পরে ইমরানসহ তিন বন্ধু জাফলংয়ের জিরো পয়েন্ট এলাকায় নদীতে গোসল করতে নামেন। এ সময় সাঁতার না জানায় বন্ধুদের অগোচরে স্রোতের টানে পানিতে ডুবে নিখোঁজ হন ইমরান।