নাটোরের সিংড়া ও বড়াইগ্রাম উপজেলায় পৃথক দুইটি সড়ক দুর্ঘটনায় আজাহার আলী (৫৫) নামে এক ভ্যানচালক ও শাজাহান আলী (৫২) নামে এক ট্রাকের হেলপার নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন ভ্যানের দুইজন যাত্রী। 

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের বাইসা পাড়া ব্রিজ সংলগ্ন স্থানে ট্রাকচাপায় ভ্যানচালক এবং বুধবার রাতে বড়াইগ্রামের বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের লাথুরিয়া এলাকায় ট্রাকচাপায় অপর এক ট্রাকের হেলপার নিহত হন।

নিহত আজাহার আলী সিংড়া উপজেলার কলম গ্রামের আকবর আলীর ছেলে এবং শাজাহান আলী চুয়াডাঙ্গা জেলার সদর উপজেলার হাতিকাটা স্কুলপাড়া এলাকার আফতাব হোসেনের ছেলে। এ দুর্ঘটনায় ঘাতক ট্রাকসহ চালক ও হেলপারকে আটক করে সিংড়া থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে। তারা হলেন, যশোর জেলার কোতোয়ালী থানার নুররুর গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে ট্রাক চালক লিটন হোসেন এবং একই গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে ও ট্রাকের হেলপার মো. পিয়াস।

বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন ও হাইওয়ে পুলিশের ঝলমলিয়া ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর রেজওয়ানুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার সময় সিংড়া উপজেলার নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের ভ্যানচালক আজাহার আলী বাইসা পাড়া ব্রিজ সংলগ্ন স্থানে ভ্যান চালিয়ে যাওয়ার সময় অপর একটি ভ্যানকে অতিক্রম করতে যায়। এসময় নাটোরগামী ভুট্টাবোঝাই একটি ট্রাক ভ্যানটির সামনে এসে গেলে ওই ভ্যানচালককে বাঁচাতে গিয়ে ট্রাকচালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এসময় ওই ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক আজাহার মারা যান। একইসঙ্গে ভ্যানে থাকা যাত্রী মো. সাজু মিয়া ও তার স্ত্রী মোছা. লিপি বেগম আহত হয়েছেন। তাদের সিংড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

অপরদিকে বনপাড়া হাইওয়ে থানার ওসি মোজাফ্ফর হোসেন জানান, বুধবার রাতে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কে একটি ট্রাক বিকল হয়ে পড়ে। এসময় ওই ট্রাকটি মেরামত করতে রাস্তার পাশে রেখে হেলপার শাজাহান আলী অন্যান্য ট্রাক চালককে সর্তক রাখতে সিগন্যাল দিতে থাকেন। এক পর্যায়ে অপর একটি ট্রাক তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে শাজাহান মারা যান। এ ঘটনায় ঘাতক ট্রাকটি জব্দ করা গেলেও চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছেন। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।