টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুল হালিম করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধিন অবস্থায় হয়ে মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল (৭২) বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। অ্যাডভোকেট আব্দুল হালিম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও টাঙ্গাইল অ্যডভোকেট বার সমিতির সাবেক সভাপতি ও টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি ২০১৪ ও ২০১৯ সালে আওয়ামী লীগের মনোনাীত প্রার্থী হয়ে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ব্যক্তিগত সহকারি কামরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চত করে জানান, শরীরে জ্বর ও গলাব্যথা অনুভব করলে তিনি গত ৪ জুলাই শনিবার করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। ৫ জুলাই রোববার তার করোনা পজিটিভ আসে। তারপর বাসায় আইসোলেশনে ছিলেন। অবস্থার অবনিত হলে গত ১১ জুলাই থেকে রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানে শারিরীক নানা জটিলতা দেখা দেয়।  শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি সেখানে মারা যান।

শুক্রবার বাদ আসর ভূঞাপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রথম জানাজা নামাজ ও গ্রামের বাড়ি সাফলকুড়ায় দ্বিতীয় জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন স্থানীয় সাংসদ তানভীর হাসান ছোট মনি, ভুঞাপুর পৌরসভার মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুদুল হক মাসুদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইশরাত জাহানসহ প্রমুখ।