পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি-স্বল্পতা ও নাব্য সংকটের কারণে স্বাভাবিকভাবে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় যানবাহনের চাপ বেড়েছে। 

বৃহস্পতিবার ঘাটে প্রায় ৭০০ ট্রাক ফেরি পারের অপেক্ষায় ছিল।

ঘাট সূত্রে জানা গেছে, এ নৌরুটে চলাচলরত ১৮টি ফেরির মধ্যে আমানত শাহসহ চারটি ফেরি বিকল থাকায় ১৪টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। এ ছাড়া নদীর পানি দ্রুত কমতে থাকায় ঘাটগুলো ওঠানামা করতে হচ্ছে। এসব কারণে ঘাট এলাকায় যানজট দেখা দেওয়ায় বিআইডব্লিউটিসি কর্তৃপক্ষ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যাত্রীবাহী বাস ও কোচ পারাপার করায় পণ্যবাহী ট্রাকচালকদের চার-পাঁচ দিন করে ঘাটেই পড়ে থাকতে হচ্ছে।

সিলেট থেকে ছেড়ে আসা কুষ্টিয়াগামী ট্রাকচালক আমীর হোসেন জানান, তিনি মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে ঘাটে আসেন। 

ঢাকার মিরপুর থেকে ছেড়ে আসা যশোরগামী ট্রাকচালক জালাল উদ্দিন জানান, গত সোমবার রাত ২টার দিকে ঘাটে আসেন। কিন্তু ঘাটে যানজটের কারণে বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত অপেক্ষায় থেকেও ফেরিতে উঠতে পারেননি তিনি। এ রকম প্রায় ৭০০ ট্রাক পারাপারের অপেক্ষায় ঘাট এলাকায় পড়ে রয়েছে।

আরিচা অফিসের বিআইডব্লিউটিসির ডিজিএম জিল্লুর রহমান জানান, এ নৌরুটে ফেরি-স্বল্পতা, নাব্য সংকট ও তিন সপ্তাহ ধরে যানবাহনের চাপ বাড়ায় ঘাট এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।