ফরিদপুর সদর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের বিলনালিয়া গ্রামের পাশে ফাঁকা মাঠ থেকে আগুনে পোড়া একটি মরদেহের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মরদেহের পরিচয় এখনো শনাক্ত করা যায়নি। 

পুলিশের ধারণা- মরদেহটি ১২ থেকে ১৪ বছরের কোনো কিশোরীর হতে পারে। স্থানীয়রা বলছেন- মরদেহটি ব্যাগের মধ্যে এনে সেখানে পেট্রোল ঢেলে আগুন দেয় হত্যাকারীরা।

পশ্চিম বিলনালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. কাজী তারেক বলেন, বিলনালিয়া গ্রামের পেছনের মাঠে কৃষকরা কাজ করতে গিয়ে মরদেহটি দেখতে পান। ধারণা করা হচ্ছে- অজ্ঞাত কোনো কিশোরীকে হত্যার পর সুটকেস জাতীয় কোনো লাগেজের মধ্যে নিয়ে এখানে এনে পেট্রোল ঢেলে আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

ফরিদপুর কোতয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক শংকর কুমার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে আগুনে পোড়া ছাই ও মরদেহের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ১২-১৪ বছরের কোনো কিশোরীর মরদেহ হতে পারে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। 

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম এ জলিল বলেন, খবর পেয়ে থানা পুলিশ, সিআইডির ক্রাইমসিন টিম ও পিবিআইয়ের টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। পুরোপুরি ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় এখনো মরদেহের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সিআইডি ও পিবিআই আলামত সংগ্রহ করছে। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ ঘটনাটির তদন্ত শুরু করেছে।