চট্টগ্রামে অভিষেক টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন ডানহাতি অফ স্পিনার নাঈম হাসান। আট ম্যাচের ছোট্ট টেস্ট ক্যারিয়ারে ইনিংসে তৃতীয় পাঁচের দেখা পেলেন তিনি। ১৫ মাস পরে জাতীয় দলের জার্সিতে ফেরাটা রঙিন করলেন। 

চট্টগ্রামে টেস্টে ফেরার ম্যাচে তিনি প্রথম দিন শ্রীলঙ্কার দুই ওপেনারকে তুলে নেন। দ্বিতীয় দিন ক্রিজে জমে যাওয়া অ্যাঞ্জেল ম্যাথুস এবং দিনেশ চান্দিমালের জুটি ভাঙেন। চান্দিমালকে ফেরান ৬৬ রানে। পরেই তুলে নেন নিরোশান ডিকওয়েলাকে। এরপর অসিথ ফার্নান্দোকে ফিরিয়ে পূর্ণ করেন ফাইফার। 

তবে ষষ্ঠ উইকেটটাই তার ইনিংসের সেরা। ডাবল সেঞ্চুরি থেকে এক রান দূরে থাকতে অ্যাঞ্জেল ম্যাথুসকে ক্যাচে পরিণত করেন তিনি। প্রথম দিন বিপদে পড়া দলকে এক হাতে টানতে থাকা সাবেক লঙ্কান অধিনায়ক ৩৯৭ বলে ১৯ চার ও এক ছক্কায় ১৯৯ রান করে আউট হন। 

তিনি আউট হওয়ায় শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংসে ১৫৩ ওভার খেলে ৩৯৭ রানে অলআউট হয়েছে। ম্যাথুস-চান্দিমাল ছাড়া ফিফটি করেছেন কুশল মেন্ডিস। তিনি আউট হন ৫৪ রান করে। 

জাতীয় দল থেকে বাদ পড়লেও খুব একটা খারাপ করেননি নাঈম হাসান। আগের সর্বশেষ টেস্টেও দ্বিতীয় ইনিংসে তিন উইকেট নিয়েছিলেন তিনি। তবে জায়গা হারান মূলত স্পিন অলরাউন্ডার মেহেদি মিরাজের কাছে। ব্যাট ও বল হাতে মিরাজ দারুণ ছন্দে থাকায় একাদশে ঢুকতে পারেননি তিনি। লঙ্কানদের বিপক্ষে খেলার সুযোগ পেয়েছেন মিরাজের ইনজুরির কারণে।