মধুমিতায় ব্যবসা করছে ‘পাসওয়ার্ড’

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০১৯     আপডেট: ০৯ জুন ২০১৯      

অনিন্দ্য মামুন

মধুমিতা হল ছবি: সমকাল

রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী সিনেমা হল মধুমিতা। ১৯৬৭ সালে যাত্রা শুরু করা হলটি পার করছে পঞ্চাশ বছর। ঢাকাই সিনেমা ইন্ডাষ্ট্রির নানা উত্থান পতনের সাক্ষী হয়ে আজও ঢাকার মতিঝিলের প্রাণকেন্দ্রে মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে রয়েছে হলটি। 

এবারের ঈদে মধুমিতায় চলছে শাকিব খান প্রযোজিত ও অভিনীত ছবি ‘পাসওয়ার্ড’। ঐতিহ্যবাহী হলটিতে কেমন চলছে ঈদের এ ছবি? সে খোঁজ নিতেই  মধুমিতায় যাওয়া। গিয়ে দেখা গেলো ঈদের পঞ্চম দিনেও দুপুর ১২.৩০ মিনিটের শো’তে দর্শকদের আশানুরুপ উপস্থিতি। 

ঈদের দিন থেকে প্রতিদিন মধুমিতায় তিনটি করে শো চলেছে। এর মধ্যে প্রায় সবগুলো শোতেই দর্শক ছিলো হাউজফুল। তাই ঈদে পাসওয়ার্ড নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেন হলটির  কর্ণধার ইফতেখার-উদ্দিন নওশাদ। যিনি চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতির দায়িত্বও পালন করছেন। 

মধুমিতার কর্ণধার  ছবিটির ব্যবসা নিয়ে সন্তুষ্ঠ বলেই সমকাল অনলাইনকে জানান। সরেজমিনে হলে গিয়ে পাওয়া যায়  ম্যানেজার মো. হাবিবুল্লাহকে। তিনিই ঈদের ছবির হাল হকিকত সম্পর্কে জানান। ঈদের দিন থেকে প্রতিটি শো’য়ের সেল রিপোর্টও প্রতিবেদককে দেখান তিনি। জানান, পাসওয়ার্ড দেখে দর্শকরাও প্রশংসা করছেন। এমনিতেই এখন শাকিব খানের ছবির উপরই আমাদের ভরসা করতে হয়। ঈদে শাকিব খানের ছবি এলে দর্শকদের মাঝে ভালো সাড়া আসে। ব্যবসাও হয়।’

মধুমিতায় টিকিটের দাম মিডল স্টল ৬০ টাকা এবং রিয়াল ১০০ টাকা। প্রতিটি হাউজফুল শো’তে প্রায় ১২শ’ দর্শক ছবি দেখেন বলেও জানান ম্যানেজার হাবিবুল্লাহ।

মধুমিতা হলের ম্যানেজার  মো. হাবিবুল্লাহ

হলটিতে গেলো  কোরাবনীর ঈদে ‘ক্যাপ্টেন খান’ প্রদর্শিত হয়েছিল। সে সময়ও ভালো ব্যবসা করেছিলো বলে জানান ম্যানেজার। তবে গত ঈদের চেয়ে এই ঈদের সেল রিপোর্ট অনেক ভালো। বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলা থাকলেও তার প্রভাব তেমন পড়েনি  বলেই মন্তব্য তার। 

ঈদকে কেন্দ্র করে মধুমিতাকে সুসজ্জিত করা হয়েছে। দর্শকদের সুবিধার জন্য হলের পরিবেশও উন্নত করা হয়েছে। দর্শকরা যেন আরামে ছবি দেখতে পারেন সেদিকে হল কর্তৃপক্ষ সজাগ আছে বলেও জানান  হাবিবুল্লাহ।

তিনি আরও বলেন, আগামী সপ্তাহেও আমরা ‘পাসওয়ার্ড’ দেখাবো। কারণ ঈদে ঢাকার অনেক মানুষই গ্রামের বাড়িতে গিয়েছেন। তাদের অনেকেই ঢাকায় এসে হলে ছবি দেখার জন্য আসবেন। তাই আশা করছি আগামী সপ্তাহের অনেক শো’ই হাউজফুল যাবে।  

দীর্ঘ ৫ বছর পর নিজের প্রযোজনা সংস্থা এসকে ফিল্মস থেকে ছবি নির্মাণ করেছেন শাকিব খান। নায়িকা হিসেবে আছেন শবনম বুবলী। মালেক আফসারী পরিচালিত ছবিটিতে রয়েছে চিত্রনায়ক ইমনও। ইতোমধ্যে ছবিটিতে ইমনের চরিত্র দারুন প্রশংসিতও হয়েছে। আছেন ঢাকাই ছবির ভার্সেটাইল খল অভিনেতা মিশা সওদাগরও। ঈদে ১৭৪টি হলে মুক্তি পায় পাসওয়ার্ড।