র‌্যাবের অভিযান নিয়ে দীপনের ছবি অপারেশন সুন্দরবন

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০১৯     আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

‘ঢাকা অ্যাটক’ ছবি নির্মাণ করে আলোচনায় আসেন পরিচালক দীপংকর দীপন। পুলিশি থ্রিলারধর্মী ছবিটি দেশের বাইরে বিদেশের মাটিতেও হয় প্রশংসিত। নিজের নির্মিত প্রথম ছবিতেই জাত চিনিয়েছেন তিনি। প্রমাণ করেছেন ভালো অ্যারেজমেন্ট থাকলে দেশে বসেও বিশ্বমানের ছবি নির্মাণ করা সম্ভব। 

প্রথম ছবি মুক্তি পায় ২০১৭ সালে। প্রথম ছবি সাফল্য পেলেও নতুন আর কোন ছবিতে দেখা যায়নি তাকে। দুটি ছবির ঘোষণা দিলেও নানা কারণে সেগুলো এখনও শুটিং ফ্লোরে গড়ায়নি। এবার জানালেন নতুন ছবি নির্মাণ করবেন তিনি। পুলিশি অ্যাকশন থ্রিলারের পর এবার তার নতুন ছবির বিষয়বস্তু হবে র‌্যাবের অভিযান।

সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অতিথিরা 

বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয়  বিকেল ৪ টা ৩০ মিনিটে সেই নতুন ছবির চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।  র‌্যাব ফোর্সেস ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ও থ্রি হুইলারসের মধ্যে হবে এই চুক্তি স্বাক্ষর হয়। সেখানেই জানানো হয় দীপনের নতুন এই ছবির নাম হবে 'অপারেশন সুন্দরবন'।

সমঝোতা স্বাক্ষরের  সময় তোলা  ছবি 

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন র‍্যাবের মহা পরিচালক ড. বেনজীর আহমেদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে  হাজির হন বিএফডিসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আব্দুল করিম,  আরও ছিলেন সৈয়দ হাসান ইমাম ও র‍্যাবের এডিজি কর্ণেল মো. জাহাঙ্গীর আলম।

অনুষ্ঠানে নতুন এই ছবিতে কে কে অভিনয় করবে কী সেটা জানানো হয়নি। তবে শিগগিরই তারকা চূড়ান্ত করে জানানো হবে বলে জানান দীপন। 

এ সময় দীপংকর দীপন বলেন,ছবির প্রেক্ষাপট সুন্দরবনকেন্দ্রিক। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ বন সুন্দরবনে একসময় জলদস্যুদের অবাধ বিচরণ ছিল। যার ফলে সুন্দরবন ছিল সাধারণ মানুষের জন্য ভয়ের একটি জায়গা। এমনকি সুন্দরবনের জেলে, মৌয়ালও জীবিকা নির্বাহের জন্য মাছ ধরতে ও মধু সংগ্রহ করতে পারত না। এখন সুন্দরবন দস্যুশূণ্য। র‌্যাবের চৌকষ বাহিনীর একের পর এক অভিযানে সুন্দরবন হয়েছে দস্যুশূণ্য। র‌্যাবের এই দুঃসাহসিক অভিযানকে উপজীব্য করেই নির্মিত হবে ছবিটি। কে অভিনয় করবেন সেটা জানানো হবে শিগগরিই। 

এর আগে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমাটি নির্মিত হয়েছিল পুলিশের দুঃসাহসিক অভিযান নিয়ে। যেটির অন্যতম প্রযোজক ছিল পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্ট।